“একজন পকেটমার থেকেও দ্রুত স্ট্যাম্পের পেছনে হাত চালাতে পারেন ধোনি”

ক্রিকেট

মহেন্দ্র সিং ধোনি স্টাম্পের পেছনে দাঁড়িয়ে কত কাণ্ডই না ঘটিয়েছেন। অবিশ্বাস্য সব তৎপরতায় আউট করেছেন ব্যাটসম্যানদের। এক-দুইবার নয়, অজস্রবার। মাঝে-মধ্যে ব্যাটসম্যানরা তো বটেও ভারতীয় দলে তাঁর সতীর্থেরাও বিস্মিত হয়েছেন, ধোনি কীভাবে পারেন? মাঠে কীভাবে এতটা তৎপর থাকতে পারে রক্ত-মাংসে গড়া একজন মানুষ!

তাইতো ভারতের কোচ রবি শাস্ত্রী মনে করেন, একজন পকেটমারের থেকেও অনেক দ্রুত স্ট্যাম্পিং করতে পারেন ধোনি। গতকাল (১৫ আগস্ট) আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। আর তাকে নিয়ে সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডেতে এক সাক্ষাৎকারে উইকেটের পেছনে ধোনির পারদর্শিতা তুলে ধরেন।

ছবিঃ ধোনির সাথে ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী

শাস্ত্রীর ভাষায়, “আমার কাছে তার যে দুইটা কাজ সবচেয়ে বেশি অসাধারণ লাগে তা হলো স্ট্যাম্পিং ও রান আউট করার সামর্থ্য। সে এতই দ্রুত হাত চালিয়ে স্ট্যাম্পিং ও রান আউট করতে পারত যে একজন পকেটমারও তার কাজের ক্ষেত্রে এত দ্রুত হাত চালাতে পারে না।”

“সে দুর্দান্ত! এতই দ্রুত কাজ করত যে সেই সময়ের মধ্যে ব্যাটসম্যানও বুঝতে পারত না বেল পড়ে গিয়েছে। আসলে ধোনির কোনো বিকল্প নেই, সে একজনই। সে ভারতীয় ক্রিকেটে পরিবর্তন এনেছে এবং সুন্দর ব্যাপার হলো যে তিন সংস্করণেই সে এই পরিবর্তন এনেছে। আপনি যদি ক্রিকেটে সেরাদের তালিকা করেন, সেরা নয় কিন্তু সেরাদের সেরা, তাহলে সেখানে ধোনিকে রাখতেই হবে।”– যোগ করেন তিনি।

প্রসঙ্গত যে, উইকেটরক্ষক হিসেবেও ধোনি ছিলেন দারুণ সফল। ওয়ানডে ক্রিকেটে ৩২১টি ক্যাচ নেওয়ার পাশাপাশি ১২৩টি স্ট্যাম্পিং মিলিয়ে উইকেটরক্ষক হিসেবেই তিনি কিংবদন্তি। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে তার ডিসমিসাল ৮৩৯টি (৬৩৪ ক্যাচ, ১৯৫ স্ট্যাম্পিং), যা উইকেটরক্ষকদের ইতিহাসে তৃতীয় সেরা। তার সামনে আছেন শুধু মার্ক বাউচার (৯৯৮ ডিসমিসাল) এবং অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (৯০৫ ডিসমিসাল)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *