মেসির জন্য কোটি কোটি ডলারের বস্তা নিয়ে প্রস্তত ম্যান সিটি

ফুটবল

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে শোচনীয় পরাজয়ের পর থেকেই বাতাসে গুঞ্জন হয়তো এবারই নিজের ভালোবাসার ক্লাবকে বিদায় বলে দিতে পারেন আর্জেন্টাইন ক্ষুদে জাদুকর লিওনেল মেসি। এরই মধ্যে আরেক বোমা ফাটালো ইংলিশ দৈনিক দ্য মিরর। তাদের দাবি ক্ষুদে জাদুকরকে দলে ভেড়াতে যে কোনো পরিমাণের টাকা খরচ করতে রাজি ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটি।

বিগত প্রায় এক দশকেরও বেশি সময় ধরে বার্সার মূল স্তম্ভ লিও মেসিকে দলে ভেড়ানোর প্রাণপন চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ম্যান সিটি। বিশেষ করে মেসির সাবেক গুরু পেপ গার্দিওলা ক্লাবটির দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই তাকে আরও বেশি দলে চাইছে সিটিজেনরা। পূর্বেও এমন গুঞ্জন শোনা গেলেও সেই সব খবর কোনদিনই সত্যি হয়নি।

কিন্ত এবার অবশ্য প্রেক্ষাপট বদলেছে। বার্সার পরিচালনা পর্ষদের সাথে দূরত্বটা দিনদিন বেড়েই চলেছে মেসির। মৌসুমের লা লিগা ট্রফিটা হারিয়েই জানিয়ে দিয়েছিলেন, সতীর্থদের ওপরও এখন আর আস্থা রাখতে পারছেননা তিনি।

এরপর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টারে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে লজ্জাজনক বিদায়ের পর তার ক্ষোভটা আরো বেড়েছে সেটিই স্বাভাবিক।

মেসিগুরু পেপ গার্দিওলাও খুব করে দলে চাইছেন তার প্রিয় শিষ্যকে। কারণটাও পরিষ্কার। বার্সায় ৪ মৌসুম ছিলেন দায়িত্বে। এরমধ্যে ২বারই জিতেছেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা। মেসি-গার্দিওলা জুটিকে ইতিহাসের অন্যতম শক্তিশালী জুটি হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

গার্দিওলার অধীনে মেসিও কাটিয়েছেন স্বর্ণসময়। দুজনের রসায়নটাও তাই বেশ ভালো। সেই জুটিটার কি আবারো প্রত্যাবর্তন হবে?

ইউরোপের অন্যতম শীর্ষ গণমাধ্যম দ্য মিরর বলছে, সেটি খুবই সম্ভব। কারণ মেসির জন্য যতো টাকাই লাগুক, খরচ করতে রাজি ম্যানসিটি। 

এখনকার চুক্তি অনুযায়ী লিওনেল মেসির বাই আউট ক্লজ ৬৩৫ মিলিয়ন ইউরো। বাংলাদেশি টাকায় যা প্রায় সাড়ে ৬ হাজার কোটি টাকা!

ক’রোনাকালীন এই দূর্মূল্যের বাজারে অংকটা কিছুটা কমাবে বলে আশা করছে ম্যানসিটি। তবে সেটি যে কোনভাবেই ৫০০ মিলিয়নের নিচে নামবেনা সেটি তো পরিষ্কারই। আর সেটি হলে ট্রান্সফার মার্কেটের নতুন রেকর্ডটাও দখলে নেবেন লিওনেল মেসি। আর বিশ্বসেরা ফুটবলারের জন্য সেই পরিমান অর্থ খরচ করতেও অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে সিটিজেনরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *