খেলার বাহিরে থেকেও যেকারণে ফিটনেস টেস্টে চমক দেখালেন সাকিব

বাংলাদেশ ক্রিকেট

পাক্কা এক বছর ক্রিকেটের বাইরে ছিলেন সাকিব আল হাসান। নিষেধাজ্ঞার শেষ মুহূর্তে কেবল কয়েক সপ্তাহের জন্য বিকেএসপিতে ব্যক্তিগত ক্যাম্প করেছিলেন। তাতেই দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। বুধবার সর্বোচ্চ স্কোর করে ফিটনেস টেস্টে পাস করেছেন সাকিব।


গত দুই দিনে ফিটনেস টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন প্রায় একশোর বেশি ক্রিকেটার। সেখানে সর্বোচ্চ স্কোর ছিল পেসার মেহেদী হাসানের। তার স্কোর ছিল ১৩.৬। বুধবার মেহেদীকে পেছনে ফেলে সাকিব সর্বোচ্চ ১৩.৭ স্কোর নিয়ে ফিটনেস টেস্টের বৈতরণী পার করলেন। আর তার এমন চমকের পেছনের কারণ জানালেন সাকিবের গুরু নাজমুল আবেদীন ফাহিম।

তিনি বলেন, “সাকিব যেকোনো ধরনের ফিটনেস টেস্টেই ভালো করবে বলে আমি নিশ্চিত ছিলাম। কারণে যে ধরনের পরিশ্রম ও করেছে বিকেএসপিতে ৫ সপ্তাহ! ওর সাথে যারা ছিল অ্যাথলেটিকসের কোচ কাফি। তার তত্ত্বাবধানে পুরো ফিটনেস প্রোগ্রামটা হয়েছে। পাশাপাশি ও বক্সিং কোচ ভাষণ। তাদের পরিকল্পনা কাজে লেগেছে।”

“এর পাশাপাশি সাকিবের প্রতিশ্রুতির ব্যাপারটা বলতেই হবে। যে পরিমাণ পরিশ্রম ও করেছে তাতে এরকম কিছুই কাঙ্ক্ষিত ছিল। গত এক মাসে এই অনুশীলন থেকে দূরে থাকার কারণে কিছুটা পিছিয়ে গিয়েছে। তারপরও ১৩.৭ অনেক ভালো। ওকে অভিনন্দন।”– যোগ করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *