বিপ টেস্টে সর্বনিম্ন স্কোর করা নিয়ে মুখ খুললেন নাসির

বাংলাদেশ ক্রিকেট

দুর্দান্ত ফিল্ডিং আর উড়ন্ত সব ক্যাচ নিয়ে নাসির হোসেন ছিলেন সব সময়ই জাতীয় দলের সেরা ফিল্ডারদের একজন। মাঠে তার উপস্থিতি বোঝা যেত দৌড়-ঝাঁপে। সীমানায় কিংবা বৃত্তের ভেতরে ভালো ফিল্ডিং করে কখনো দলের রান বাঁচিয়েছেন, আবার কখনো ভালো ক্যাচ ধরে দলকে দিয়েছেন সাফল্য। হয়তো ওই ক্যাচেই বাংলাদেশের পক্ষে এসেছে ম্যাচ। এরকম স্মরণীয় মুহূর্ত কম নেই বাংলাদেশের ক্রিকেটে।

কিন্তু সেই নাসিরের নামের পাশে যুক্ত হয়েছে ‘আনফিট’ তকমা। কারো মতে, ক্যারিয়ার নিয়ে খামখেয়ালি করা নাসিরের এমন দিনটি দেখতেই হতো!

বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপ শুরুর আগে ক্রিকেটারদের ফিটনেস টেস্ট বাধ্যতামূলক করে বিসিবি। অন্য সবার মতো আজ নাসিরও দেন ফিটনেস টেস্ট। বিপ টেস্টে ১১ স্কোর পাস মার্ক রেখেছিলেন নির্বাচকরা। কিন্তু তরতাজা নাসির পাস তো করতেই পারেননি, দুই দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন স্কোর গড়েন। বিপ টেস্টে নাসিরের স্কোর মাত্র ৮.৫।

বিপ টেস্টে কেন এমন করলেন নাসির এই প্রশ্নের উত্তর জানা ছিলনা কারইম তবে এবার সেই ঘটনা নিয়ে জবাব দিয়েছেন এই অলরাউন্ডার।

সম্প্রতি দারাজের এক অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত নাসির বলেন, ‘আমি সোশ্যাল মিডিয়াতে এত সক্রিয় নই। আমি জিম করি, ব্যাটিং করি, এগুলো ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামে দেই না। অনেকে দেয়, কিন্তু আমি দেই না। রংপুরে আমি ভালোমত প্র্যাকটিস করেছি। ঢাকায় এসে আবার প্র্যাকটিস করতে গিয়ে ইঞ্জুরিতে পড়ে যাই।’

নাসির আরও জানান,‘ইঞ্জুরির পর ফিজিওকে দেখিয়েছি, ব্যক্তিগত ট্রেনারকে দেখিয়েছি। তারা সবাই আমাকে মানা করেছে বিপ টেস্ট যেন না দেই। আমি টুর্নামেন্ট খেলার পরিস্থিতিতে ছিলাম না। কিন্তু নিজের ইচ্ছায় বিপ টেস্ট দিয়েছি। খেলার উদ্দেশে দেইনি, আমি কী অবস্থায় আছি, আরও কতটুকু ফিট হতে হবে সেটা দেখার জন্যই দিয়েছি।’

নাসিরের দাবি, ‘আমার পুরো ক্যারিয়ারে কখনো এমন বিপ টেস্ট দেইনি। সবাই জানে আমি কেমন ফিট থাকি বা ছিলাম বা আছি। এত কম হবার কথা না আমার। বিপ টেস্ট দেওয়ার সময় পায়ে ব্যথা শুরু হয় এবং থেমে যাই। তখন মাথায় এসেছে, এই ২০ দিনের খেলার চেয়ে ৬ বছরের ক্যারিয়ার বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

‘অনেকে অনেকভাবে বলছে- আমি ফিটনেস নিয়ে কিছু করি না, লকডাউনে কিছু করিনি। কিন্তু আমিও কাজ করেছি। এটাই সবাইকে বলি। আমিও করেছি, কিন্তু সেটা সোশ্যাল মিডিয়াতে দেইনি।’– যোগ করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *