লঙ্কান বোর্ডের এমন দ্বৈত আচরণে নাখোস বিসিবি

বাংলাদেশ ক্রিকেট

আগামী বছরের শুরুতে শ্রীলঙ্কা সফরে আসছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। তবে তারা নিজ দেশ থেকেই ১৪ দিন কোয়ারেন্টিন করে আসবে। লঙ্কায় এসে তারা পাবে সরাসরি মাঠে খেলার সুযোগ। অথচ গত বাংলাদেশকে এমন কোনো সুবিধাই দিতে রাজি হয়নি শ্রীলঙ্কা। তাদের শর্ত ছিল লঙ্কা সফরে গিয়ে ১৪ দিন হোটেল রুম থেকে বেরতে পারবে না টাইগার ক্রিকেটাররা। আর ঘন ঘন কোভিড-১৯ টেস্টতো ছিল।

লঙ্কান বোর্ডের এমন দ্বৈত আচরণকে অসম্মান না ভাবলেও বিসিবি দারুণ নাখোশ। এ বিষয়ে বিসিবি’র মিডিয়া বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘আমি অসম্মানের কিছু বলবো না।তারা জানুয়ারি মাসে খেলা দিয়েছে, তারা আশা করছে যে আরো বেটার পরিস্থিতি হবে। কিন্তু আমিও মনে করি প্রথমে আমরা খেলতে চেয়েছিলাম শ্রীলঙ্কাতে, প্রথম দেশ হিসেবে। এবং আমাদের প্ল্যানটা তাই ছিল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আমাদের দিয়েই শুরু করার কথা ছিল। আমরা যেভাবে তাদের কাছে অনুরোধ করেছি তারা সেটা রাখেনি। যেহেতু এটা তাদের পলিসি, আমি আমার জায়গা থেকে কোনো মন্তব্য করতে পারি না।’

তিনি আরও বলেন, ”বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড দুই দেশের জন্য আলাদা পলিসি হয়েছে কিন্তু আমি মনে করি তারা ভেবেছে জানুয়ারিতে পরিস্থিতি আরো উন্নতি হবে। সে জন্যই হয়তো কোয়ারেন্টিনে অনুশীলন এলাউ করেছে। এক হিসাবে আমরাও বলতে চাই যে, আমরা যে দাবি রেখেছিলাম সেসবও যৌক্তিক দাবি ছিল। আমরা এখান থেকে কোভিড টেস্ট করিয়ে যেতাম, ওখানে গিয়ে প্রতি সপ্তাহে আবার করতাম। সেদিক থেকে আমি মনে করি কোনো ঝুঁকি ছিল না। সেটাতো আমাদের একটা সুযোগ ছিল, তারা নিতে পারতো। আমি জানি না তারা কেন নেয়নি। তবে তারা নিলে আমরা তাদের পলিসি মেনেই কোয়ারেন্টিন করতাম।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *