কোহলিকে তুলোধুনো করছেন ভক্তরা!

অন্যান্য খবর

দীপাবলির শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইটারে একটি ভিডিও শেয়ার করার পর বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছেন বিরাট কোহলি। ভারতের সোশ্যাল মিডিয়ায় তার ভিডিও নিয়ে বেশ আলোচনা-সমালোচনা তৈরি হয়েছে।

১৮ সেকেন্ডের ভিডিওতে কোহলি বলেন, ‘ঈশ্বর আপনাকে ও আপনার পরিবারকে দিওয়ালির সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি দিক। এই দিওয়ালিতে আতশবাজি পোড়াবেন না, পরিবেশের সুরক্ষা নিশ্চিত করুন এবং আপনার ভালোবাসার মানুষের সাথে পবিত্র উপলক্ষটি উদ্‌যাপন করুন।’

ভিডিও মেসেজটি পোস্ট করার পর থেকে বিরাট কোহলি টুইটার ট্রেন্ডের প্রথম সারিতে রয়েছেন। অনেক টুইটার ব্যবহারকারীই কোহলির পোস্টটি পছন্দ করেননি, তবে ভারতীয় অধিনায়কের অনেক ভক্ত আবার বার্তাটি সমর্থন করছেন। তারপর থেকেই হ্যাশট্যাগ স্ট্যান্ডউইথবিরাট টুইটারে ট্রেন্ড করছে।

কিন্তু এই ভিডিও মেসেজের সঙ্গে সম্পর্কিত অন্যান্য ট্রেন্ডও টুইটারে উপরের দিকে রয়েছে, যেখানে মানুষ বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মার বিরুদ্ধে তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

অনেক টুইটার ব্যবহারকারী প্রশ্ন তুলছেন, কিছুদিন আগে বিরাট কোহলির জন্মদিন উপলক্ষে যখন আতশবাজি পোড়ানো হয় সেসময় তিনি কেন তার প্রতিবাদ করেননি?

একটি টুইটে কোহলিকে ‘জ্ঞান দেয়া বন্ধ’ করতে বলে পোস্টদাতা লিখেছেন, ‘আমার উৎসব তোমার সামাজিক সচেতনতা তৈরির উপলক্ষ নয়। ’

আরেকজন ব্যবহারকারী মন্তব্য করেছেন, ‘এই ব্যক্তি কয়েকদিন আগেই আতশবাজিতে ভরপুর আইপিএল ফাইনাল খেলেছেন। তিনি আমাদের উপদেশ দিচ্ছেন কীভাবে উদ্‌যাপন করতে হয়, বিসিসিআই বা আইপিএলের আয়োজকদের কী তিনি একই উপদেশ দিয়েছিলেন?’

একজন ব্যবহারকারী আবার ক্রিকেট মাঠের জন্য গাছ কাটা থেকে শুরু করে খেলোয়াড়দের ভ্রমণের জন্য বাস, ট্রেন, বিমানে ব্যবহৃত জ্বালানি তেলের বিষয়টিও তুলে এনেছেন তার পরিবেশ সুরক্ষা বিষয়ক উক্তির জবাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *