বেলজিয়ামের কাছে হেরে নেশন্স লিগ থেকে ইংল্যান্ডের বিদায়

উয়েফা নেশন্স লিগ

উয়েফা নেশন্স লিগ থেকে বিদায় নিয়েছে ইংল্যান্ড। গত রাতে লুভেনের কিং পাওয়ার স্টেডিয়ামে বেলজিয়ামের কাছে ২-০ গোলে পরাজিত হয়েছে থ্রি লায়ন্সরা।

প্রতিপক্ষের ভুলের সুযোগ কাজে লাগিয়ে ম্যাচের নবম মিনিটেই এগিয়ে যায় বেলজিয়াম। এরিক ডায়ার নিজেদের সীমানায় বল হারালে সতীর্থের পা ঘুরে পেয়ে যান রোমেলু লুকাকু। ডান দিকে তিনি খুঁজে নেন টিলেমানসকে। লেস্টার সিটির এই মিডফিল্ডারের শট এক জনের পায়ে লেগে কাছের পোস্ট ঘেঁষে জালে জড়াতে যাচ্ছিল। গোলরক্ষক জর্ডান পিকফোর্ড ঝাঁপিয়ে বলে হাত লাগালেও রুখতে পারেননি, বল পোস্টের ভেতরের কানা নিয়ে দূরের পোস্ট দিয়ে ভেতরে ঢোকে।

দলকে এগিয়ে নিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা লুকাকু দুই মিনিট পর রক্ষণেও নায়কের ভূমিকায় হাজির। হ্যারি কেইনের হেডে বল ঝাঁপিয়ে পড়া গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়াকে ফাঁকি দিয়ে লক্ষ্যেই ছিল, কিন্তু গোললাইন থেকে হেডে ফিরিয়ে দেন ইন্টার মিলানের স্ট্রাইকার লুকাকু।

২৩তম মিনিটে অসাধারণ নৈপুণ্যে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মের্টেন্স। বাঁ দিক থেকে তার নেওয়া ফ্রি-কিক রক্ষণপ্রাচীরের ওপর দিয়ে সামান্য বাঁক খেয়ে কাছের পোস্ট দিয়ে ঠিকানা খুঁজে নেয়।

৩৪তম মিনিটে ম্যাসন মাউন্টের কাছ থেকে নেওয়া শট ব্লক করেন বেলজিয়ামের ডিফেন্ডার ইয়ান ভার্টোনেন। বিরতির আগে কেইনের প্রচেষ্টা ঠেকিয়ে জাল অক্ষত রাখেন কোর্তোয়া।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে অধিকাংশ সময় বল দখলে রেখে একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে ইংল্যান্ড। ঘর সামলাতে ব্যস্ত বেলজিয়াম বারবার ফাউল করায় খেলার স্বাভাবিক ছন্দ নষ্ট হয়। চাপ ধরে রাখলেও নিশ্চিত কোনো সুযোগ অবশ্য তৈরি করতে পারছিল না সফরকারীরা।

এরই মাঝে পাল্টা আক্রমণে ইংলিশদের রক্ষণে ভীতি ছড়ান লুকাকু। তার শট ঠেকিয়ে দলকে লড়াইয়ে রাখেন পিকফোর্ড। যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে প্রতি-আক্রমণে লুকাকুর ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে ব্যবধান বাড়েনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *