পুলিশের হাতে গ্রেফতার সুরেশ রায়না

অন্যান্য খবর

ক্রিকেটার সুরেশ রায়না এবং গুরু রানধাওয়াকে মুম্বই বিমানবন্দরের কাছে ড্রাগনফ্লাই ক্লাবে তল্লাশি চালিয়ে গ্রেফতার করা হলো। পরে যদিও ব্যক্তিগত জামিনে মুক্তি দেওয়া হয়েছে দুইজনকে।

রাত আড়াইটার সময় রেইডের সময় মোট ৩৪ জনকে আটক করা হয়েছিল। তার মধ্যে ড্রাগনফ্লাই ক্লাবের সাত কর্মীও রয়েছেন। কোভিড সংক্রান্ত নিয়মনীতি ভঙ্গ করায় গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্তদের।

সাহার পুলিশ থানার সিনিয়র আধিকারিক জানান, ধৃতদের মধ্যেই ছিলেন ক্রিকেটার সুরেশ রায়না এবং গায়ক গুরু রানধাওয়া। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ১৮৮, ২৬৯ এবং ৩৪ নম্বর ধারায় কেস দেওয়া হয়েছে।

মুম্বাইয়ে বর্তমানে ক’রোনা সংক্রমণের কারণে নাইট কারফিউ চলছে। ব্রিটেন থেকে ফেরত যাত্রীদের ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন পর্ব কাটাতে হবে, এমন নির্দেশিকাও জারি করেছে ভারত মহারাষ্ট্র সরকার। ডিসেম্বর মাসের ২২ তারিখ থেকে জানুয়ারির ৫ তারিখ পর্যন্ত এই নিয়ম বলবৎ থাকছে। এই কারণেই নির্ধারিত সংখ্যকের বেশি ব্যক্তি কোনো পানশালা বা পাবে জড়ো হতে পারেন না। এই সংক্রান্ত নিয়ম ভেঙেই পুলিশের জালে রায়না, গুরু রানধাওয়া।

কোভিড সংক্রান্ত নিয়ম ভঙ্গ করছিল অন্ধেরির এক বিখ্যাত ড্রাগনফ্লাই ক্লাব। তারপরেই হানা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় মুম্বাই পুলিশ। সেখানেই তারপর নাম উঠে আসে সুরেশ রায়না, গুরু রানধাওয়া এবং সুজান খানের নাম উঠে আসে। বাদশাও ছিলেন। তবে পুলিশের হানা দেওয়ার আগেই তিনি ক্লাব ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন বলে খবর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *