আজকের দিনে কেন ম্যাচের নাম ‘বক্সিং ডে টেস্ট’?

ক্রিকেট

বক্সিং ডে বলতে বুঝানো হয় বড়দিনের পরের দিনটিকে অর্থ্যাৎ ২৬ ডিসেম্বরকে। খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব ক্রিস্টমাস বা বড় দিন। এদিন ছোট-বড় গরিব-দুখীদের মাঝে উপহার বিতরণ করা হয়। সামর্থ্যবানরা সব সময়ই বক্সে করে গরিবদের উপহার দিয়ে থাকেন। উপহার দেওয়া হয় ২৬ ডিসেম্বরও। এদিন কমনওয়েলথভূক্ত দেশসমূহে সরকারী ছুটির দিন হিসেবে পালিত হয়।


প্রাচীন সনাতনী রীতি-নীতি অনুযায়ী গরীব লোকদেরকে উপহার প্রদান করাই এদিনের প্রধান উপজীব্য বিষয়। এ উপহারসামগ্রী ‘ক্রিস্টমাস বক্স’ বা ‘বড়দিনের বাক্স’ নামে পরিচিত। সেখান থেকে ২৬ ডিসেম্বরকে বলা হয় ‘বক্সিং ডে’। বড়দিনের পরদিন ম্যাচটি শুরু হয় বলে এর আদুরে নাম হয়ে গেছে বক্সিং ডে টেস্ট।

বক্সিং ডে টেস্ট বেশিরভাগ সময় অনুষ্ঠিত হয় অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকায়। যেমনটা হচ্ছে আজ। তিন দলই আজকের দিনে মাঠে নেমেছে। আজ অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে বক্সিং ডে টেস্ট মুখোমুখি হয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও ভারত।

এছাড়া মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে পাকিস্তান। সেই সাথে সেঞ্চুরিয়নে দক্ষিণ আফ্রিকা লড়বে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। যদিও মেলবোর্ন টেস্টে স্বভাবতই একটু বেশি আলোচনায় থাকে। কারণ প্রতিবছরই অস্ট্রেলিয়ার এই মাঠে অনুষ্ঠিত হয় বক্সিং ডে টেস্ট।

বক্সিং ডে ক্রিকেটে প্রথম শুরু হয় ১৮৯২ সালে, শেফিল্ড শিল্ডের ম্যাচে ভিক্টোরিয়া এবং নিউ সাউথ ওয়েলসের ম্যাচ দিয়ে। ১৯৫০ সাল থেকে শেফিল্ড শিল্ডের পরিবর্তে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের এই ঐতিহ্যবাহী ম্যাচ। সেটাই প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রথম বক্সিং ডে টেস্ট। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এমসিজিতে খেলেছিল চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ড। এরপর বিভিন্ন দেশে এই বক্সিং ডে টেস্ট শুরু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *