উপরে শুধুমাত্র ব্র‍্যাডম্যান; অনন্য ইতিহাসের পাতায় স্মিথ

ক্রিকেট

ভারতের বিপক্ষে চলমান টেস্ট সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে রান পাননি স্টিভেন স্মিথ। যেকারণে উইলিয়ামসনের কাছে নিজের শীর্ষ স্থানটাও হারিয়ে বসেন। তবে নতুন বছরের প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমেই পুরনো রুপে দেখা গেল সময়ের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানকে। ভারতের বিপক্ষে সিডনি টেস্টে দুর্দান্ত শতক হাঁকিয়েছেন স্মিথ। এই সেঞ্চুরিতে একাধিক রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন তিনি।


সিডনি টেস্টের বৃষ্টি বিঘ্নিত প্রথম দিনে অস্ট্রেলিয়া ২ উইকেটের বিনিময়ে ১৬৬ রান তোলে। মার্নাস ল্যাবুশান ৬৭ ও স্টিভ স্মিথ ৩১ রানে অপরাজিত ছিলেন।

প্রথম দিনের পর থেকে খেলা শুরু করে অজিরা দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনেই পুনরায় বৃষ্টির বাধার মুখে পড়েন। যদিও স্মিথ-ল্যাবুশান দলকে শক্তপোক্ত ভিতে বসিয়ে দিতে সক্ষম হন।

তবে স্টিভ স্মিথের সঙ্গে একশো রানের পার্টনারশিপ পূর্ণ করার পরেই সাজঘরে ফেরেন মার্নাস ল্যাবুশান। ৭১তম ওভারে জাদেজার পঞ্চম বলে স্লিপে রাহানের হাতে ধরা পড়েন তিনি। নিশ্চিত শতরান মাঠে ফেলে আসেন ল্যাবুশান। ১১টি বাউন্ডারির সাহায্যে ১৯৬ বলে ৯১ রান করে সাজঘরে ফেরেন মার্নাস।

৭২তম ওভারে অশ্বিনের চতুর্থ বল বাউন্ডারিতে পাঠিয়ে সিরিজে প্রথমবার ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন স্টিভ স্মিথ। ১১৬ বলে ব্যক্তিগত অর্ধশতরান পূর্ণ করেন স্মিথ।

এরপর দারুণ ব্যাটিংয়ে শতকের দিকে এগুতে থাকেন স্টিভেন। দলকেও এগিয়ে নিতে থাকেন। কিন্তু সঙ্গ ভাল পাননি। দ্রুতই ফেরেন ওয়েড গ্রিনরা। অধিনায়ক পেইনও ফেরেন ১ রান করেই। তবে সিরিজে প্রথমবার শতরান করেন স্মিথ। ৯৮তম ওভারে সাইনির শেষ বলে ৩ রান নিয়ে ব্যক্তিগত সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন স্মিথ। ২০১ বলের ইনিংসে ১৩টি বাউন্ডারি মারেন তিনি।

শতকের পর রবীন্দ্র জাদেজার অনবদ্য থ্রোয়ে রান-আউট স্টিভ স্মিথ। ১৬টি বাউন্ডারির সাহায্যে ২২৬ বলে ১৩১ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি।

টেস্ট কেরিয়ারে স্মিথের এটি ২৭ নম্বর সেঞ্চুরি। ৭৬টি টেস্টের ১৩৬ নম্বর ইনিংসে ২৭ নম্বর শতরান করেন স্মিথ।

স্মিথ ছুঁয়ে ফেলেন বিরাট কোহলি, গ্রেম স্মিথ ও অ্যালান বর্ডারের ২৭টি টেস্ট সেঞ্চুরি করার নজির। স্টিভ পিছনে ফেলে দেন গ্যারি সোবার্সের ২৬টি টেস্ট সেঞ্চুরি করার রেকর্ড।

২৭টি সেঞ্চুরির পথে স্মিথ ইনিংসের নিরিখে পিছনে ফেলে দেন কোহলি (১৪১), টেন্ডুলকর (১৪১), গাভাসকর (১৫৪), হেডেনদের (১৫৭)। তিনি বর্ডার ও গ্রেম স্মিথের থেকেও দ্রুত ২৭টি সেঞ্চুরি করেন। একমাত্র স্মিথের থেকে কম টেস্ট ও কম ইনিংসে ২৭টি সেঞ্চুরি করেন স্যার ডন ব্র্যাডম্যান। স্যার ব্র্যাডম্যান মাত্র ৭০টি ইনিংসে ২৭টি সেঞ্চুরি করেছিলেন। সুতরাং, দ্বিতীয় দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে ২৭টি টেস্ট সেঞ্চুরি করেন স্মিথ।

একই সাথে আরো একটি রেকর্ড গড়েন স্মিথ। ভারতের বিপক্ষে সবচেয়ে বেশি শতকে গ্যারি সোবার্স, ভিভ রিচার্ডসদের পাশে নাম লেখান স্মিথ। ভারতের বিপক্ষে এটি স্মিথের অষ্টম শতক। সমান সেঞ্চুরি পন্টিং, ভিভ ও সোবার্সেরও। তবে স্মিথ তাদের চাইতে কম ইনিংস খেলেই এই রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *