শেষদিনে তিনটি ক্যাচ ছেড়ে ভারতে ‘বন্ধু বাড়ালেন’ টিম পেইন

Uncategorized

অস্ট্রেলিয়া-ভারত সিডনি টেস্টের শেষে দিনে রোমাঞ্চ ছড়িয়ে ড্র করেছে ভারত। তবে অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক টিম পেইনের কিপিং–গ্লাভস দিনটা মোটেও ভালো কাটেনি।

টিম পেইন এদিন ৯৭ রান করে ভারতকে লড়াইয়ে টিকিয়ে রাখা ঋষভ পান্টের দুটো ক্যাচ ছেড়েছেন। জয় ছিনিয়ে নিতে প্রতিপক্ষকে ‘স্লেজিং’ করেছেন ইচ্ছেমতো। তাতে নিজেদের অধিনায়কের ওপর খেপেছেন অস্ট্রেলীয়রা, মুখ বন্ধ ছিল না ভারতীয় সমর্থকদেরও।

ঋষভ পান্টের দুটো ক্যাচ ছাড়াও পর হনুমা বিহারির একটি ক্যাচ ছেড়েছেন পেইন। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রসিকতা তো চলছিলই। কিন্তু সেটি আর রসিকতার পর্যায়ে থাকেনি পেইনের কারণেই।

অশ্বিন–বিহারির জমাট জুটিতে সিডনি টেস্টে ড্র করেছে ভারত। চোট নিয়ে চোয়ালবদ্ধ লড়াই চালিয়ে গেছেন দুজন। এ কারণে মাঝেমধ্যে মাঠেই চিকিৎসাসেবা নিতে হয়েছে অশ্বিন–বিহারিকে।

কিন্তু ব্যাপারটি সহ্য হয়নি পেইনের। এমনই এক চিকিৎসাসেবা শেষে বিহারি ঊরুর প্যাড পরার সময় পেইন নিজেকে আর ধরে রাখতে পারেননি। ভারতের দুই ব্যাটসম্যানের প্রতি চেঁচিয়ে বলেছেন, ‘কী হাস্যকর! দ্রুত করো, সিরিয়াসলি বলছি।’

এরপরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পেইনের প্রতি গরল উগরে দেন নেটিজেনরা। অস্ট্রেলিয়ান সমর্থকদের বেশির ভাগের মতামত, পেইনের প্রতি কোনো সম্মান আর রইল না।

কেউ আবার টুইট করেন, ‘প্রিয় টিম পেইন, ক্যাচ ম্যাচ জেতায়, স্লেজিং না।’ নাথান লায়নের এক ওভারে অশ্বিনকে নির্মমভাবে কটুবাক্য বলেন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক।

ফক্স স্পোর্টসের কাভারেজ ধরা পড়ে পেইনের স্লেজিং। বাগ্‌যুদ্ধটা পেইনই শুরু করেন, ‘অ্যাশ, গ্যাবায় তোমাকে পেতে তর সইছে না।’ অশ্বিনের পাল্টা, ‘ঠিক যেভাবে তোমাকে ভারতে পেতে দেরি সইছে না। এটাই হবে তোমার শেষ সিরিজ।’

পেইনের খোঁচা, ‘তুমি কি এখানে নির্বাচকও? অন্তত সতীর্থরা আমাকে পছন্দ করে…(প্রকাশের অযোগ্য ভাষা)।’

পেইন এখানেও থামেননি। অশ্বিনের মনঃসংযোগে ব্যাঘাত ঘটাতে চালিয়ে যান স্লেজিং, ‘ভারতে তোমার চেয়ে আমার বন্ধুসংখ্যা বেশি। এমনকি তোমার সতীর্থরাই তোমাকে বোকা মনে করে। সবাই। গ্যাবা পর্যন্ত অপেক্ষা করো। আইপিএলে যখন প্রতিটি দলের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরেছ, তখন কতগুলো দল তোমাকে নিতে চেয়েছে।’

মজার ব্যাপার, পরের ওভারেই হনুমা বিহারির ক্যাচ নিতে ব্যর্থ হন পেইন। এরপরই তাঁকে খোঁচাটা মারেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং।

ফক্স স্পোর্টসের কাভারেজে পন্টিং বলেন, ‘আগের ওভারেই পেইন বলেছে, ভারতে তাঁর বন্ধুসংখ্যা অশ্বিনের চেয়ে বেশি। আমার মনে হয় সে এখন কিছু বন্ধু জুটিয়ে নিল (ক্যাচ ছাড়ার পর)।’ পাশ থেকে ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার সহমত প্রকাশ করেন পন্টিংয়ের খোঁচায়, ‘শতভাগ! শতভাগ!’

পেইনকে ধুয়ে দিয়েছেন গাভাস্কারও। চ্যানেল সেভেনকে তিনি বলেন, ‘খোলাখুলি বলতে গেলে এটা হাস্যকর। সে (পেইন) বলেছে ভারতে অশ্বিনের চেয়ে বেশি বন্ধু আছে। এটা রীতিমতো হাস্যকর, অগ্রহণযোগ্য এবং অপ্রয়োজনীয় কথা। অথচ দুর্দান্ত একটা ম্যাচ চলছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *