বাংলাদেশকেই ফেভারিট বলছেন উইন্ডিজ কোচ

বাংলাদেশ ক্রিকেট

বাংলাদেশ সফরে এসে স্বাগতিকদেরই ফেভারিট বলে মেনে নিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ কোচ ফিল সিমন্স। তবে নিজের শিষ্যদের ওপরও পূর্ণ আস্থা সাবেক এই ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটারের। বললেন, তারুণ্য নির্ভর দলটা বাংলাদেশে ভালো করতে ক্ষুধার্ত।


তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে গত রবিবার ঢাকায় আসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল।আপাতত হোটেলবন্দি হয়েই থাকতে হচ্ছে তাদের। পার করতে হচ্ছে কোয়ারেন্টাইন পর্ব।

এর মাঝেই মঙ্গলবার অনলাইন সংবাদসম্মেলনে মুখোমুখি হন উইন্ডিজ কোচ সিমন্স। এ সময় বাংলাদেশকেই ফেভারিট হিসেবে মেনে নেন তিনি, ‘বাংলাদেশ পরিষ্কার ফেভারিট। কারণ তারা দেশের মাটিতে খেলছে এবং দেশে তারা ভালো খেলে। এটা নিয়ে ভিন্নমতের কারণ নেই। ’

২০১৮ সালে সবশেষ বাংলাদেশ সফরে টি-টোয়েন্টি সিরিজ (২-১) জিতলেও টেস্ট (০-২) ও ওয়ানডে সিরিজে (১-২) হেরে যায় উইন্ডিজ ক্রিকেট দল। সেবার দলে সেরা তারকারাই ছিল। কিন্তু করোনা শঙ্কায় এবার একঝাঁক বড় তারকা বাংলাদেশে আসেনি।

তাই উইন্ডিজের জন্য চ্যালেঞ্জটা বেশ কঠিন।
সিমন্স অবশ্য তারুণ্য নির্ভর দলটায় আস্থা রাখতে চান। বললেন, ‘যে কোনো সিরিজই আমরা খেলতে নামি জয়ের জন্য। হ্যাঁ, বলতে পারেন আমাদের পুরো দল এখানে নেই। কিন্তু যারা আছে, তারা ভালো করতে চায়। তারা খুবই ক্ষুধার্ত এবং এই কন্ডিশনে খেলতে ও লড়াই করতে মুখিয়ে আছে। ’

যোগ করেন, ‘আমরা দেশ ছেড়েছি জয়ের লক্ষ্য নিয়েই। অভিজ্ঞতা কখনো কখনো ভূমিকা রাখে বটে। আমাদের কয়েকজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার আছে। তবে কখনো কখনো তাড়না ও ক্ষুধা দিয়ে অভিজ্ঞতাকে পেছনে ফেলা যায়। আশা করি এই সিরিজে এমন কিছুই হবে। ’

২০ নভেম্বর ওয়ানডে দিয়ে শুরু হবে দুই দলের লড়াই। উভয় দলের জন্যই ওয়ানডে লিগে এটিই হবে প্রথম সিরিজ। অর্থাৎ ২০২৩ বিশ্বকাপে জায়গা পাওয়ার লড়াই শুরু হবে এই সিরিজ দিয়েই। তাই সিরিজটি খুবই গুরুত্ব পাচ্ছে উইন্ডিজ কোচের কাছে। সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই বলেছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *