আইপিএলের জন্যই আজ ক্রিকেটারদের এই দুর্দশা

Uncategorized

বর্ডার-গাভাস্কার টেস্টে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া দলের ক্রিকেটারদের চোটের পেছনে আইপিএলকে দুষলেন অজি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। করোনা পরবর্তীতে অতিরিক্ত ম্যাচ খেলার প্রভাব এটি, মনে করেন তিনি।



ক’রোনা পরবর্তী সময়ে ক্রিকেট বিশ্বে উত্তাপ ছড়াচ্ছে বর্ডার-গাভাস্কার সিরিজ। ভারত-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার সিরিজের সবশেষ দুই টেস্ট ম্যাচ শেষ হয়েছে নানা নাটকীয়তায়। মাঠের খেলা শেষ হলেও রেশ রয়ে গেছে এখনো। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুরে বেড়াচ্ছে অজি অধিনায়ক টিম পেইন আর স্টিভেন স্মিথের বিতর্কিত আচরণ।

তৃতীয় টেস্টে টিম পেইনের স্লেজিং আর স্টিভেন স্মিথের বিচিত্র আচরণ সমালোচনায় আসে। তবে বিষয়টিকে স্বাভাবিকভাবেই দেখছেন অজি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। যদিও পেইন ক্ষমা চেয়েছেন নিজের আচরণের জন্য।



কোচ বলেন, পেইনের উপর আমি কতটা ভরসা করি তা কল্পনাও করতে পারবেন না। জানি দিনটা ওর ছিল না। কিন্তু ৩ বছরে ও নির্ভুলই থেকেছে। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক হিসেবে ও অসাধারণ। মাঠের বিষয়গুলো আসলে পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে। আর স্মিথের ব্যাপারে আমি যা পড়েছি তা নিজেই বিশ্বাস করতে পারছি না। সব বাজে কথা। স্মিথকে যারা চেনেন তারা জানেন সে কতটা চঞ্চল। ঐ ঘটনা নিয়ে আমরা অনেক হেসেছিলাম ড্রেসিং রুমে। ক্রিজে স্মিথ এমনই করে।

নানা নাটকীয়তার পর করোনাকালীন ঠিকই আইপিএল আয়োজন করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। যার প্রভাব পড়েছে ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া দুই দলেই। বর্ডার-গাভাস্কার সিরিজের ৩টি টেস্ট যেতে না যেতেই ইনজুরি জেঁকে বসেছে দুই দলে। যার জন্য আইপিএল আয়োজনকে দুষলেন অজি কোচ।

ল্যাঙ্গার বলেন, আমি আইপিএল ভালবাসি। আমি আইপিএল দেখি সেভাবেই, যেভাবে তরুণ ক্রিকেটারদের অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য ইংলিশ কাউন্টিকে দেখা হত। কাউন্টিতে কোন ক্রিকেটার গেলে তার দারুণ অভিজ্ঞতা হত। তেমনি আইপিএলে সাদা বলের ক্রিকেটে তরুণরা দারুণ অভিজ্ঞতা অর্জন করে। তবে সময়সূচিতে গরমিল হয়েছে। যার প্রভাব এখন এই সিরিজে পড়েছে। দেখার পালা সামনের গ্রীষ্মে আরো কত অজি ক্রিকেটার ইনজুরিতে পড়ে!

উল্লেখ্য ১৫ জানুয়ারি শেষ টেস্টে মুখোমুখি হবে ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া। ৩ টেস্টে ১-১ সমতায় সিরিজ। তাই শেষ ম্যাচটি হবে সিরিজ নির্ধারনী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *