লিভারপুলের সাথে ড্র করেও জিতে গেল ম্যান ইউ!

ক্লাব ফুটবল

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলের সাথে ড্র করে এক পয়েন্ট বাগিয়ে নিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। সেই সাথে লিগ টেবিলের শীর্ষস্থানও মজবুত করলো লাল শত্রুরা।

পুরো ম্যাচজুড়ে ছড়ি ঘোরালেও কাঙ্ক্ষিত গোল পেল না লিভারপুল। দ্বিতীয়ার্ধে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও সুযোগ পেল; কিন্তু স্কোরলাইন থাকল গোলশূন্য।

ম্যাচে বলের নিয়ন্ত্রণ ও আক্রমণে আধিপত্য করলেও প্রথমার্ধে প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক দাভিদ দে হেয়ার তেমন কোনো পরীক্ষা নিতে পারেনি ফিরমিনো-সালাহ-মানেকে নিয়ে সাজানো লিভারপুলের আক্রমণভাগ।

সপ্তদশ মিনিটে রবের্তো ফিরমিনোর শট পোস্টের বাইরে যায়। তিন মিনিট পর জেরদান শাচিরির শট এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে বাইরে যায়। একটু পর ফিরমিনোর শট এক ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে প্রতিহত হওয়ার পর মোহামেদ সালাহর ভলি উড়ে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে।

২৫তম মিনিটে হ্যারি ম্যাগুইয়ারের ভুল পাসে বল পেয়ে জর্জিনিয়ো ডেইনালডাম শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি।

আগের রাউন্ডে বার্নলির মাঠ থেকে কষ্টের জয় নিয়ে ফেরা ইউনাইটেড দ্বিতীয়ার্ধে কিছুটা ওপরে উঠে খেলে। কিন্তু র‍্যাশফোর্ড-মার্সিয়ালরা লিভারপুলের ডি-বক্সে সুবিধা করতে পারেনি।

৫৯তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে অ্যান্ডি রবার্টসনের লম্বা ক্রসে পা ছোঁয়াতে পারেননি ফিরমিনো। বিপদমুক্ত করেন ম্যাগুইয়ার। সবশেষ ম্যাচে অ্যাস্টন ভিলাকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেওয়া লিভারপুলের হতাশা আরও বাড়ে।

এক মিনিট পর এন্থনী মার্সিয়ালকে তুলে উরুগুয়ের ফরোয়ার্ড এদিনসন কাভানিকে নামান ইউনাইটেড কোচ উলে ‍গুনার সুলশার।

৭৫তম মিনিটে আলিসনের দৃঢ়তায় বেঁচে যায় লিভারপুল। লুক শয়ের কাট ব্যাকে ব্রুনো ফের্নান্দেসের শট শেষ মুহূর্তে পা দিয়ে আটকান ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক। তিন মিনিট পর থিয়াগো আলকান্তারার শট ফিস্ট করে ফিরিয়ে ইউনাইটেডের ত্রাতা দে হেয়া।

৮৩তম মিনিটে গোলের সুবর্ণ সুযোগ নষ্ট হয় ইউনাইটেডের। ফের্নান্দেসের শট এক ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে পেয়ে যান পল পগবা। ফরাসি মিডফিল্ডারের শট আটকান আলিসন।

টানা তিন জয়ের পর পয়েন্ট হারাল লিগে আগের ১১ ম্যাচে অপরাজিত ইউনাইটেড। শেষ ১২ ম্যাচে তারা জিতেছে ৯টি, ড্র তিনটি।

অন্যদিকে, চার ম্যাচ ধরে জয়শূন্য রইলো লিভারপুল, এক হার ও তিন ড্র। শেষ তিন ম্যাচে জালের দেখা পেল না তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *