কাউকে অনুসরণ নয়, ‘বাংলাদেশি ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট’ গড়তে চান তামিম

বাংলাদেশ ক্রিকেট

তামিম ইকবালের অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে। পূর্ণ মেয়াদে ওয়ানডে সংস্করণে টাইগারদের অধিনায়কত্বের দায়িত্ব বুঝে পাওয়ার প্রায় ১০ মাস পর আগামীকাল প্রথমবারের মতো টস করতে নামবেন তিনি। গত বছর ৮ মার্চ বোর্ড সভা শেষে মাশরাফীর স্থলাভিষিক্ত হন তামিম ইকবাল। করোনা বিরতি কাটিয়ে মাঠে নেমে পরীক্ষা দেয়ার সময় এসেছে নতুন অধিনায়কের। অন্য কাউকে অনুসরণ নয়, টাইগার নয়া কাপ্তান তামিমের আস্থা বাংলাদেশি স্টাইলেই, গড়ে তুলতে চান ‘ বাংলাদেশি ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট’।

ঘরের মাঠে উইন্ডিজ সিরিজের আগে আজ (মঙ্গলবার) ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেন তামিম ইকবাল। দেশের মাটিতে উইন্ডিজ সিরিজ দিয়েই দীর্ঘমেয়াদে তামিমের অধিনায়কত্বের সূচনা হতে যাচ্ছে। তাই স্বাভাবিকভাবেই তামিমের কাছে সাংবাদিকদের জানতে চাওয়া, কেমন হবে তামিমের অধিনায়কত্বের ধরণ, কাউকে কি অনুসরণ করে এগোবেন তিনি?

তামিমের সোজাসাপ্টা জবাব, কাউকে অনসরণ করতে চান না তিনি। বাংলাদেশি ব্র্যান্ড অব ক্রিকেটকে গুরুত্ব দেবেন তিনি।

“আমি সবসময় বাংলাদেশি স্টাইল অব ক্রিকেট, বাংলাদেশি ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট গড়ে তোলার দিকে গুরুত্ব দেই। প্রত্যেকটা দেশের নিজস্ব স্টাইল আছে। আমি মনে করি না আমাদের অন্য কাউকে অনুসরণ করা উচিৎ। অনেক জায়গায় বলেছে হয়ত আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজের মত শক্তিশালী না, ওদের মত বিল্ডআপ না। আমাদের এমন অনেক এডভান্টেজ আছে যা অন্যদের দলে নেই। তাই কাউকে অনুসরণ না করে বাংলাদেশি ব্র্যান্ড অব ক্রিকেট তৈরি করতে চাই। আমরা যেগুলো খেলতে পারি তা দিয়েই। ”

ঘরের মাঠে উইন্ডিজ পরীক্ষার আগে বিসিবি প্রেসিডেন্টন্স কাপ ও বঙ্গবন্ধু কাপের অভিজ্ঞতা বাড়তি সুবিধা দিবে বলে মনে করেন তামিম। টাইগার অধিনায়ক বলেন, “ এটা একটা ভালো দিকই বলতে পারেন যে জাতীয় দলে শুরুর আগে দুইটা টুর্নামেন্টে অধিনায়কত্ব করতে পেরেছি। দুর্ভাগ্যবশত মহামারির কারণে আমরা অনেক ক্রিকেট হাতছাড়া করেছি। দুই টুর্নামেন্টই আমার জন্য কঠিন ছিল। স্টাইল বা ব্র্যান্ড সময়ের সাথে সাথে গড়ে উঠবে। আমি যদি এখন একটা কথা বলি আর পরিস্থিতি ভিন্ন থাকে, তাহলে সেটা অনুসরণ না করলে তো আর হল না। সময়ের সাথে সাথে বুঝতে পারব কোন পথে এগোচ্ছি। তাই পরিস্থিতি বুঝতে হবে। কখনো রক্ষণাত্মক হতে হয়, কখনো আক্রমণাত্মক হতে হয়।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *