অভিষেকেই ইতিহাস গড়া সেঞ্চুরি হাঁকালেন গুরবাজ

ক্রিকেট

ওয়ানডে অভিষেকে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে একাধিক বিশ্বরেকর্ডে নাম লেখালেন আফগান ব্যাটসম্যান রাহমানুল্লাহ গুরবাজ। আজ প্রথম ওয়ানডেতে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নিজের অভিষেক ম্যাচে খেলতে নেমে সেঞ্চুরি করেন ১৯ বছর বয়সী গুরবাজ।


আবু ধাবিতে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় আফগানরা। ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে অভিষেক হয় গুরবাজের। ওপেনিংয়ে নেমে শুরু থেকেই নিজের স্বভাব সুলব ব্যাটিংয়ে ঝড় তোলেন গুরবাজ। পাওয়ারপ্লেতে যোগ করেন ৫৯ রান।

দারুণ ব্যাটিং করে মাত্র ৩৮ বলে তুলে নেন ফিফটি। যা ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে অভিষেকে সবচেয়ে দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড। আগে এই রেকর্ড ছিল নাসির জামশেদের। ৪০ বলে ফিফটি করেছিলেন এই পাকিস্তানি ক্রিকেটার।

১২০ রানের ওপেনিং জুটির পর একদিকে উইকেট পড়লেও অসাধারণ ব্যাটিং করে এরপর শতকের দিকে এগুতে থাকেন গুরবাজ। ব্যাটসম্যানদের আসা যাওয়ার মিছিলে তার রানের গতি কিছুটা মন্হর হয়। তবে শতক তুলে নিতে ভুল করেননি।

১১৫ বলে ছয় বাউন্ডারি আর ৭ ছক্কায় তুলে নেন দারুণ সেঞ্চুরি। যা অভিষেকে সেঞ্চুরি করা প্রথম কোন আফগান ক্রিকেটারের রেকর্ড। আর বিশ্বের মধ্যে ১৬ তম কোন ব্যাটসম্যান হিসেবে অভিষেকে সেঞ্চুরির রেকর্ড।

তবে মাত্র ১৯ বছর ৫৪ দিনে সেঞ্চুরি করে ওয়ানডে অভিষেকে সবচেয়ে কম বয়সে সেঞ্চুরি করার রেকর্ড দুই নম্বরে জায়গা করে নেন গুরবাজ। তার উপরে আছেন কেবল সালেম ইলাহি। ১৮ বছর ৩১২ দিনে শতক করেছিলেন তিনি। আর সব মিলিয়ে কম বয়সে শতকের তালিকায় গুরবাজ আছেন ৬ নম্বরে।

অন্যদিকে উইকেটরক্ষক হিসেবে ওয়ানডে অভিষেকে সেঞ্চুরি করার রেকর্ডে অ্যান্ড্রু ফ্লাওয়ারের পরে জায়গা করে নিয়েছেন গুরবাজ। ১৯৯২ সালে ফ্লাওয়ার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এ রেকর্ড গড়েছিলেন।

এদিন সেঞ্চুরির পর আরো ২৭ রান করে আউট হন গুরবাজ। ১২৭ বলে ১২৭ রানের ইনিংসে খেলে আউট হন তিনি। তার ১২৭ রানের ইনিংস ওয়ানডে অভিষেকে করা কোন ব্যাটসম্যানের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান। এ রেকর্ড সবার উপরে ডি হায়নেস। ১৪৮ রান করেছিলেন তিনি।

গুরবাজ এ ইনিংসে ছক্কা হাঁকিয়েছেন ৯ টি। যা অভিষেকে সেঞ্চুরি করা কোন ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড। আগের রেকর্ড ছিল ভারতের সিধুর। তিনি ৫ ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *