৭৬৯ দিন পর ম্যাচ সেরা হতে পেরে খুশি মিরাজ

বাংলাদেশ ক্রিকেট

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতল বাংলাদেশ। টানা দুই ম্যাচে ক্যারিবীয় তারুণ্যনির্ভর দলকে ১২২ ও ১৪৮ রানে গুড়িয়ে দিয়ে ৬ ও ৭ উইকেটের জয়ে সিরিজ নিজেদের করে নেয় স্বাগতিক বাংলাদেশ।


যেখানে ৪টি উইকেট শিকার করেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ৯.৪ ওভার বল করে মাত্র ২৫ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়েছেন মিরাজ।ওয়ানডেতে এটিই তার ক্যারিয়ারসেরা বোলিং ফিগার। আর এ ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ের দিনে ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কারটি উঠেছে তারই হাতে।

মিরাজের এর আগের ক্যারিয়ারসেরা বোলিং ফিগার ছিল এই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে হাত ঘুরিয়ে ২৯ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়েছিলেন মিরাজ। এবার একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ৪ রান কম দিয়ে সমানসংখ্যক উইকেট নিলেন। সেই সময়ইও ম্যাচ সেরা হয়েছেন মিরাজ। তার ৭৬৯ দিন পর আবারও ম্যাচ সেরা হতে পেরে খুশি মেহেদী মিরাজ।

আজ ম্যাচ শেষে আলাপকালে মিরাজ বলেন, “অনেকদিন পর ম্যান অব দ্য ম্যাচ হতে পেরে আমি অনেক খুশি। দীর্ঘদিন পর আমরা ওয়ানডে খেলছি। প্রথম ম্যাচে খুব ভালো বোলিং করতে পারিনি। সিনিয়র খেলোয়াড় এবং টিম ম্যানেজম্যান্টের সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনা করেছি।”

“আমি তিন ওভার বা এমন ছোট ছোট স্পেলে বোলিং করেছি। সাফল্যের পিছনে অধিনায়ক তামিম ইকবাল ও অগ্রজপ্রতিম রিয়াদ (মাহমুদউল্লাহ) ভাই এবং আমাদের স্পিন বোলিং কোচ সোহেল ইসলামের সঙ্গে কথা বলেছি। তামিম ভাইও সবসময় আমাকে সাপোর্ট করেছেন।”– যোগ করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *