১ রানে দুই উইকেট হারিয়েও লড়ছে ইংল্যান্ড

ক্রিকেট

দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে জেমস অ্যান্ডারসনের ৬ উইকেট শিকারে লঙ্কানদের ইনিংস থামে ৩৮১ রানে। তবে জবাব দিতে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি ইংলিশরা। যদিও লড়াইটা টিকে রেখেছেন রুট ও বেয়ারস্টো।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ১ রানের ব্যবধানে দুই উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়তে বসেছিল ইংল্যান্ড। তবে জো রুট ও জনি বেয়ারস্টোর দৃঢ়তায় সে ধাক্কা কাটিয়ে উঠেছে তারা। তৃতীয় সেশনে ব্যাটিংয়ে নামা ইংল্যান্ড দিন শেষ করেছে ২ উইকেটে ৯৮ রান নিয়ে।

রুট ৬৭ ও বেয়ারস্টো ২৪ রানে ব্যাটিং করছেন। সফরকারীরা এখনও পিছিয়ে ২৮৩ রানে।

গতকাল টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ৭ রানেই দুইটি উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। জেমস অ্যান্ডারসনের একই ওভারে কুশল পেরেরা (৬) ও ওসাদা ফার্নান্দো (০) সাজঘরে ফিরেন। এরপর তৃতীয় উইকেটে লাহিরু থিরিমান্নে ও ম্যাথিউস ৬৯ রানের জুটি গড়েন। কিন্তু অ্যান্ডারসনের তৃতীয় শিকার হয়ে ৪৩ রান করে ফিরেন থিরিমান্নে।

তবে চতুর্থ উইকেটে ১১৭ রানের বড় জুটি গড়েন দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ম্যাথিউস ও চান্দিমাল। দীর্ঘক্ষণ ব্যাট করার পর চান্দিমাল ফিরেন ৫২ রান করে। এরপর ১০৭ রানে অপরাজিত থাকা ম্যাথিউস দ্বিতীয় দিনে ৩ রান যোগ করতেই ফিরেন। ১১ চারে ২৩৮ বলে ১১০ রান করেন তিনি।


তবে দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই এমন বিপর্যয় সামাল দেন ডিকওয়ালা ও পেরেরা। ৮৯ রানের দারুণ এক জুটি গড়ে ৬৭ রান করে ফিরেন পেরারা। এরপর এক পাশ থেকে দারুণ খেলতে থাকলেও শতকের আক্ষেপ নিয়ে ফেরেন ডিকওয়ালা। ১০ চারে ১৪৪ বলে ৯২ রানের ইনিংস খেলেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (দ্বিতীয় দিন শেষে)

শ্রীলঙ্কা ৩৮১/১০ (১ম ইনিংস)
ম্যাথিউস ১১০, চান্দিমাল ৯৩
অ্যান্ডারসন ৬/৪০, উড ৩/৮৪।

ইংল্যান্ড ৯৮/২ (১ম ইনিংস)
বেয়ারস্টো ২৪*, রুট ৬৭*
এম্বুলদেনিয়া ৩৩/২।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *