জেলখানায় আছেন মিরাজ!

বাংলাদেশ ক্রিকেট

ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে নিউজিল্যান্ডে গিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। কিন্তু যাওয়ার পর থেকে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হচ্ছে টাইগারদের। আর তার শুরুতে আবদ্ধ থাকতে হচ্ছিল কেবল রুমের মধ্যেই। তবে দুইদিন পর ৩০ মিনিটের জন্যে বের হতে পারলেও আবার ঢুকতে হয় চার দেওয়ালের ভিতরে।


গত বুধবার ক্রাইস্টচার্চে পা রাখে বাংলাদেশ। সেখান থেকে সরাসরি চলে যান টিম হোটেলে। পোঁছেই নিজ ঘরে বন্দি থেকেছেন ক্রিকেটাররা। কোয়ারেন্টাইনে কাটাতে হবে দুই সপ্তাহ। তবে এরমধ্যেই হয়ে দু’বার হয়েছে কোভিড-১৯ এর পরীক্ষা। সেখানে সবাই নেগেটিভ আসায় রুম থেকে বাইরে যাওয়ার অনুমতি মিলে। দ্বিতীয় করোনা পরীক্ষা পাশ কীায় আজও কয়েক মিনিটের বের হয়েছেন টাইগার ক্রিকেটারা।

তবে আবদ্ধ ঘরে থাকাটা টাইগার অলরাউন্ডার মিরাজের মনে হচ্ছে তিনি জেল খানায় আছেন। আজ বিসিবি দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, “প্রথম তিনদিন তো রুমের ভেতরেই ছিলাম। তারপর আধা ঘণ্টা করে বের হওয়ার সুযোগ পেয়েছি সবাই। আমি যখন প্রথম যেদিন বেরিয়েছিলাম (শনিবার), শুরুর দিকে মাথা একটু ঘুরছিল। তারপর আস্তে আস্তে ১০-১৫ মিনিট পর ঠিক হয়ে গেছে। তিনদিন ঘরের ভেতর যে বন্দি ছিলাম, আমার নিজের কাছে মনে হয়েছে, জেলখানায় আছি বা হতাশা আছে।”

“যখন বাইরে বের হলাম, আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিলাম, তখন ভালো লেগেছে। পরে যখন রুমে ফিরে গেছি, তখন নিজেকে একটু ফ্রেশ মনে হয়েছে। সারাদিন রুমে থাকতে তো আর ভালো লাগে না। তিন-চারদিন রুমে কাটানো, একইভাবে… এটা আসলে একটু আমাদের জন্য অস্বস্তিকর। এই যে ত্রিশ মিনিটের জন্য বাইরে আসতে দেয়, এটা ভালো লাগে যখন রুমে(ফিরে) যাই।”– যোগ করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *