দশক সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হলেন পল স্টারলিং

ক্রিকেট

আয়ারল্যান্ডের দশকসেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতেছেন পল স্টারলিং ও কিম গারথ। ২০১১ থেকে ২০২০ পর্যন্ত সময় বিবেচনায় এ পুরস্কার ঘোষণা করেছে আইরিশ ক্রিকেট বোর্ড। যেখানে পুরুষ ক্যাটাগরিতে জিতেছেন স্টারলিং ও নারী ক্যাটাগরিতে গারথ।


দশকসেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার জেতার আগে আয়ারল্যান্ডের ২০২০ সালের বর্ষসেরা ক্রিকেটারও নির্বাচিত হয়েছেন স্টারলিং। এবার দশকসেরার পুরস্কারে তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন এড জয়েস, টিম মুরতাঘ, কেভিন ও’ব্রায়েন ও উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড। বিশ্বমানের ধারাবাহিকতার কারণে জিতেছেন স্টারলিং।

বিচারক প্যানেল তার ব্যাপারে বলেছে, ‘স্টারলিং অসাধারণ প্রতিভা এবং ম্যাচ জেতানোর মতো সামর্থ্য রয়েছে। সেরা মানের বোলিং কোয়ালিটির বিপক্ষে ওপেনিং নেমে তার স্ট্রাইক রেট দুর্দান্ত। যা কি না বড় দলগুলোর বিপক্ষে জয় পাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করে।’

পুরস্কার গ্রহণ করে স্টারলিং বলেছেন, ‘এটা সত্যিই বিশেষ পুরস্কার। লম্বা সময় ধরে খেলার পর এমন একটা ফল পাওয়া… গত ১০ বছরে আমি অনেক গ্রেট খেলোয়াড়দের সঙ্গে খেলেছি। তাদের মধ্যে সবার সেরা হওয়া… আমি ঠিক জানি না কীভাবে প্রকাশ করা উচিত। তবে আমি সত্যিই অনেক খুশি।’

দশকসেরার পুরস্কারের জন্য বিবেচিত সময়ে আয়ারল্যান্ডের হয়ে ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন স্টারলিং। এ সময় ৮ সেঞ্চুরিতে ৫৫২৯ রান করেছেন তিনি।

অন্যদিকে দশকসেরা নারী খেলোয়াড়ের পুরস্কার জেতা কিম গারথ মাত্র ১৪ বছর বয়সে ২০১০ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যাত্রা শুরু করেন। তিনি পুরস্কার জেতার পথে পেছনে ফেলেছেন লরা ডেনালি, সেসেলিয়া জয়েস, ইসোবেল জয়েস ও ক্লেয়ার শিলিংটনকে।

গত এক দশকে ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি উভয় ফরম্যাটেই সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি ছিলেন গারথ। ২০১৯ সালে ক্রিকেট আয়ারল্যান্ডের কাছ থেকে পেশাদার চুক্তি পাওয়া ছয় খেলোয়াড়ের একজন ছিলেন তিনি।

আরো পড়ুন:-
তানভিরের ‘১৩’ উইকেট; আইরিশদের ইনিংস ব্যবধানে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ
পাসপোর্ট হারানোর কারণে অধিনায়কত্ব হারালেন শানাকা!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *