ক্রাইস্টচার্চে গোলাগুলির শব্দে আতঙ্কিত তামিম!

বাংলাদেশ ক্রিকেট

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের জন্য এক আতঙ্কের শহর। কেননা ২০১৯ সালে খুব কাছ থেকে দেখেছিলেন এক বিভিষিকা। তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকাররা অল্পের জন্য বেঁচে গিয়েছিলেন বন্দুকধারীর হামলা থেকে। সে স্মৃতি এখনও তাড়া করে ফেরে বাংলার টাইগারদের।


সেই ক্রাইস্টচার্চেই নাকি আবারও গোলাগুলির শব্দ শুনেছেন বাংলাদেশে দলের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। সেই শব্দ নাকি তার কানে ভেসে আসে হোটেল রুমে বসে। গা শিউরে ওঠে তামিমের।

ক্রাইস্টচার্চের হলিডে ইন ডাবল ট্রি হোটেলে নিজের রুমে বসে দেশের অন্যতম সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সে কথায় জানিয়েছেন ওয়ানডে অধিনায়ক।

ওই সাক্ষাৎকারে তামিম বলেন, ‘হোটেল থেকেই দুই দিন আগে হঠাৎ গোলাগুলির শব্দ শুনতে পেলাম। আমি তো ভয়েই শেষ। পরে দেখলাম আতশবাজি ফোটানো হচ্ছে। এখানে কোথাও কনসার্ট হচ্ছিল। সেটা উপলক্ষে আতশবাজি। কিছুক্ষণের জন্য ভয়ই পেয়ে গিয়েছিলাম আসলে।’

এদিকে, সোমবার (০১ মার্চ) বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাতটার দিকে বিসিবি মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমামের পাঠানো ভিডিও বার্তায় নিউজিল্যান্ড সফররে আদ্যোপান্ত জানিয়েছেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

ঘরবন্দি অবস্থায় কেমন সময়টা কিভাবে কাটাচ্ছেন এমন প্রশ্নের জবাবে তামিম বলেন, ‘২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রায় সাড়ে ২৩ ঘণ্টাই থাকতে হচ্ছে রুমে। আধ ঘণ্টার মতো সময় দেয়া হচ্ছে ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে মুক্ত বাতাসের নিচে যাবার। আমার তো প্রথম দিন অদ্ভুত অনুভূতি হয়েছে। রুমে সাইক্লিং করার সরঞ্জাম আছে। দেশ থেকে আসার সময় আরও কিছু ব্যায়ামের সরঞ্জামাদি দেয়া হয়েছে। এর বাইরে মুভি এবং টিভি সিরিয়াল দেখে, বাকি সময় ঘুমিয়ে কাটাচ্ছি।’

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে স্বাগতিকদের বিপক্ষে লড়াইটা কেমন হবে জানতে চাইলে ওয়ানডে অধিনায়ক বলেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে দেশের বাইরে এটাই আমার প্রথম বিদেশ সফর। আমি অধিনায়ক হিসেবে বিশ্বাস করি যে, পুরো দল মুখিয়ে আছে সামর্থ্যর সেরাটা উপহার দিতে।’তামিম জানান, দেশের মতো দেশের বাইরেও যে কোনো দলকে হারানোর মতো সামর্থ্য আছে তার দলের।

তিনি বলেন, ‘আমার ধারণা, আমাদের সামর্থ্য আছে। আমরা যদি নিজেদের সেরাটা উপহার দিতে পারি, নিজেদের লক্ষ্য-পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলতে পারি, তাহলে যে কোনো দলকেই হারানো সম্ভব। আমাদের সে ক্ষমতা আছে।’

অধিনায়ক জানিয়েছেন সব কিছু ঠিক থাকলে বুধবার (৩ মার্চ) থেকে ৫ জন করে ভাগ হয়ে জিম আর বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) থেকে সমান ভাগে বিভক্ত হয়ে খোলা আকাশের নিচে গুচ্ছ অনুশীলনের সুযোগ মিলবে তাদের।
সূত্র: প্রথম আলো

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *