বয়স চুরি করে রেকর্ডের মালিক; ধরা খেলেন আফ্রিদি!

ক্রিকেট

১ মার্চ জন্মদিন উপলক্ষে টুইট করেছিলেন শহিদ আফ্রিদি। ভক্ত-স্বজনদের শুভেচ্ছার জবাবে ধন্যবাদ দিতে গিয়ে সেখানেই পাকিস্তানি এই ক্রিকেটার জানিয়েছেন এটি তার ৪৪তম জন্মদিন। অর্থাৎ তার জন্ম ১৯৭৭ সালে। কিন্তু ১৯৮০ সালের অফিসিয়াল হিসেব ধরে যে ওয়ানডেতে একটি বিশ্বরেকর্ডে জুড়ে আছে তার নাম!


১৯৯৬ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩৭ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। কম বলে সেঞ্চুরির বিশ্ব রেকর্ডের সঙ্গে সবচেয়ে কম বয়েসে ওয়ানডেতে সেঞ্চুরির রেকর্ডও হয়েছিল। কম বলে সেঞ্চুরির রেকর্ড হাতছাড়া হয়েছে তাও বেশ অনেকদিন হলো। কিন্তু সবচেয়ে কম বয়েসে সেঞ্চুরির রেকর্ড রয়ে গেছে আজও তার নামে। যদিও দেখা যাচ্ছে, তার নিজের হিসেব অনুযায়ী কম বয়েসে সেঞ্চুরির রেকর্ডটিও তার নয় আর।

১৯৭৭ সালে জন্ম ধরলে ১৯৯৬ সালে তার বয়স ছিল ১৯ বছরের বেশি। কিন্তু রেকর্ডটা তিনি ধরে আছেন ১৬ বছর ২১৭ দিনের বয়সের হিসেবে। আফ্রিদির নিজের মতেই প্রকৃত বয়স যদি হয় এখন ৪৪, তাহলে কম বয়েসে ওয়ানডের সেঞ্চুরির রেকর্ডটা থাকার কথা আফগানিস্তানের উসমান ঘানির দখলে। ২০১৪ সালে ১৭ বছর ২৪২ দিনে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি করেছিলেন উসমান।

আফ্রিদির করা টুইটেই অনেকে তুলেছেন সে প্রশ্ন। একজন লিখেছেন, ‘তিনি অফিসিয়ালি ১৯৮০ সালে জন্মেছেন অথচ তার আজ ৪৪ বছর বয়স!’

মোহনদাস মেনন নামের এক ভারতীয় সাংবাদিক অফিসিয়ালি রেকর্ডটা উসমানকে দেওয়ার পক্ষেই মত দিয়েছেন, ‘শহিদ আফ্রিদি জানিয়েছেন তার বয়স ৪৪ বছর। অর্থাৎ তার জন্ম ১৯৭৭ সালের ১ মার্চ। এখন তাহলে ১৯৮০ সালের বদলে অফিসিয়ালি তার জন্মসাল ১৯৭৭ ব্যবহার করা যায়। এবং তাতে ওয়ানডেতে সবচেয়ে কম বয়েসে সেঞ্চুরির রেকর্ডটা উসমান ঘানিরই হবে।’

দুই বছর আগে নিজের আত্মজীবনী ‘গেম চেঞ্জার’ প্রকাশ করে হইচই ফেলেন এই ক্রিকেটার। সেখানে প্রথমে নিজের জন্ম ১৯৭৫ বলে উল্লেখ্য করেছিলেন। অর্থাৎ প্রকৃত বয়েসের চেয়ে তার বয়স দেখানো হয় ৫ বছর কম। যদিও ছাপার ভুল বলে পরবর্তী সংস্করণে জন্মসাল ১৯৭৭ বলে জানান তিনি।

তার পাসপোর্টে আছে জন্মসাল ১৯৮০। পাসপোর্টের সেই হিসেব ধরেই আইসিসি তার নামে ধরে রেখেছে রেকর্ড। কিন্তু তিনি নিজেই যেখানে প্রকৃত জন্মসাল জানাচ্ছেন সেখানে কম বয়েসে সেঞ্চুরির রেকর্ড তার নামে আসলে থাকাটা নৈতিক কিনা, এই প্রশ্ন হয়েছে বড়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *