এবার আইপিএলে ভাগ বসাচ্ছে পিএসএল!

পিএসএল

বেশ ভালই চলছিলো, কিন্তু হঠাৎ করে করোনার হানায় বন্ধ হয়েছে পাকিস্তানের সুপার লিগে (পিএসএল)। ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোতে খেলোয়াড়েরা জৈব সুরক্ষাবলয়ের নিয়মকানুন কড়াকড়িভাবে মানেননি বলে গুঞ্জন আছে, সেটিরই প্রভাব পড়েছে। গত চার দিনে ছয় ক্রিকেটারসহ পিএসএলে সাতজনের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর এসেছে। সে কারণে পিএসএলের এবারের মৌসুমের বাকি অংশ অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়েছে।

কিন্তু সে তো পুরোনো খবর। এখন ক্রিকেটপ্রেমীদের প্রশ্ন, পিএসএলের বাকি অংশ কবে আয়োজন করা যেতে পারে? সেটির উত্তরে যা জানা যাচ্ছে, তাতে ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট লিগ আইপিএলের সঙ্গে পিএসএলের দ্বন্দ্ব আরও বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা। আইপিএল আর পিএসএলের বাকি অংশ একই সময়ে হতে পারে বলে গুঞ্জন।

আইপিএলের দিন-তারিখ এখনো ঠিক হয়নি। তবে এবার এপ্রিলের মাঝামাঝিতে শুরু হয়ে মে মাস পর্যন্ত আইপিএল অনুষ্ঠিত হবে বলে জানাচ্ছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম। পিএসএলের বাকি অংশও মে মাসেই হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে আইপিএলের শেষের দিক আর পিএসএলের বাকি অংশের সূচি সাংঘর্ষিক হয়ে যাবে।

ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফো জানাচ্ছে, অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতে অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপসহ এ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যেমন ঠাসা সূচি, তাতে মে মাস ছাড়া পিএসএল আয়োজনের আর কোনো সময় পাওয়ার সম্ভাবনা কমই। তখন পিএসএলের বাকি অংশ আয়োজন করতে না পারলে এবারের মৌসুম হয়তো বাতিলই করে দিতে হতে পারে পাকিস্তানকে।

উল্লেখ্য, গত মৌসুমেও করোনার কারণে পিএসএল প্রথমে স্থগিত করতে হয়েছিল পিসিবিকে। দুই দফায় শেষ হয়েছিল পিএসএল। মার্চে করোনা প্রথমবার হানা দেওয়ার পর ২০২০ পিএসএল স্থগিত করা হয়। তখন শুধু নকআউট পর্বের ম্যাচ বাকি ছিল। পরে নভেম্বরে জৈব সুরক্ষাবলয়ের মধ্যে সেই ম্যাচগুলো হয়েছে, যেখানে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে করাচি কিংস। এই মৌসুমে অর্থাৎ পিএসএল ২০২১-এ স্থগিত হওয়ার আগে ৩৪ ম্যাচের ১৪টি হতে পেরেছে।

এদিকে পিএসএল এভাবে স্থগিত হয়ে যাওয়ায় পাকিস্তানের মাটিতে ভবিষ্যৎ আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টগুলোও কিছুটা ঝুঁকিতে পড়তে পারে বলে জানাচ্ছে ক্রিকইনফো!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *