মাত্র ১৫ বছর বয়সেই বাংলাদেশের জার্সিতে অভিষেক

বাংলাদেশ ফুটবল

পাসপোর্টের জন্মতারিখ অনুযায়ী বয়স মাত্র ১৫ বছর ৮ মাস ২২ দিন। অথচ এই কলেজ যাবার বয়সেই লাল-সবুজ জার্সিতে হলো দারুণ এক অভিষেক। প্রথম ম্যাচেই দল পেয়েছে জয়, তাই রিমন হোসেনের কাছে অভিষেকটা একটু অন্যরকম।

নেপালের দশরথ রঙ্গশালায় ত্রিদেশীয় সিরিজে কিরগিজস্থানের বিপক্ষে অভিষেক হয় ৪ নম্বর জার্সির রিমন হোসেনের। প্রথম ম্যাচেই ১-০ তে জয় পায় বাংলাদেশ।

রিমন হোসেনের শুরু ২০১৫ সালে। একই সালে নওগাঁ ছেড়ে যশোরের শামসুল হুদা একাডেমিতে ভর্তি হয়ে ছয় বছরের মধ্যেই জাতীয় দলের টিকিট পেয়েছেন। এরপর ২০১৯ সালে তৃতীয় বিভাগে সর্বোচ্চ ও দ্বিতীয় বিভাগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছেন। গত বছর প্রথম বিভাগে সর্বোচ্চ গোলদাতা। একই বছরই বসুন্ধরা কিংসে যোগ দেন স্ট্রাইকার হিসেবে। তবে সেটিও বিদেশি কোচের অধীন অনুশীলন ও জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের কাছ থেকে শেখার আশায়। এখন হয়ে গেলেন লেফটব্যাক। চলতি মৌসুমে বসুন্ধরার হয়ে খেলেছেন সব ম্যাচই।

অভিষেক ম্যাচেই দলের জয় রিমন হোসেনের জন্য বড় প্রাপ্তি। অনেকটা আবেগতাড়িতভাবে রিমন বলেন, ‘প্রথম খেলছি তো, সেই চিন্তায় ঘুম আসছিল না রাতে। তবে নিজের খেলায় আমি খুশি। একটি গোল করাতে বা করতে পারলে ভালো লাগত।’

রিমনের এমন অভিষেকে উচ্ছ্বসিত কোচ জেমি ডে। তাঁর খেলায় খুশি বাংলাদেশ কোচ বলেন, ‘১৬ বছর বয়সেই একটা ছেলে জাতীয় দলে খেলে ফেলল, ওর যোগ্যতা নিয়ে আর কী বলব!’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *