আম্পায়ারদের ভুল; বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ বাতিল চেয়ে আবেদন!

বাংলাদেশ ক্রিকেট

রান তাড়ায় নেমে গেলেন, কিন্তু জানেনই না আসলে লক্ষ্যটা কত! নেপিয়ারে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ডাকওয়ার্থ-লুইসের ভুলের বলি হলো বাংলাদেশ। এমন ঘটনায় টুইটারে উঠেছে সমালোচকদের ঝড়। অনেকেই মেতেছেন হাস্যরসে। আর এমন ঘটনা মানতে পারছেন না খোদ নিউজিল্যান্ডের অলরাউন্ডার জিমি নিশাম।


বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ১৭.৫ ওভারে নিউজিল্যান্ড তুলেছিল ৫ উইকেটে ১৭৩ রান। ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দেয়া হয় ১৬ ওভারে ১৪৮।

সেই লক্ষ্য মাথায় নিয়ে ব্যাটিংয়েও নেমে গিয়েছিল টাইগাররা। ১.৩ ওভারে দলের রান যখন বিনা উইকেটে ১২, তখনই খবর এলো-লক্ষ্য ভুল হিসেব হয়েছে। ডাকওয়ার্থ পদ্ধতিতে জিততে হলে ১৬ ওভারে করতে হবে ১৭০ রান। এরপর আরেকবার সংশোধনী- ১৭০ নয়, দরকার ১৭১।

দেড় ওভার খেলা হওয়ার পরও টাইগাররা জানতোই না, তাদের আসলে জয়ের লক্ষ্য কত! একদিকে খেলা চলছে, অন্যদিকে ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো বসে হিসেব কষছেন। কি একটা অবস্থা!

আর এমন কান্ড দেখে আইসিসিকে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যেকার দ্বিতীয় ম্যাচটি বাতিল করার আহ্বানও জানিয়েছেন আজাদ মজুমদার নামের এক ব্যাক্তি। টুইটারে এক বার্তায় তিনি বলেন, “আইসিসির উচিত বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের মধ্যেকার দ্বিতীয় টি-২০ এর ফলাফল বাতিল করা। কারণ আপনি কোন দলকে এমন লক্ষ্য দিতে পারেন না যে নয়টি বল মোকাবেলা করেছে। এটি অনৈতিক ও বেআইনী! ”


জিমি নিশাম তো এমন কাণ্ডে রীতিমত ধুইয়ে দিয়েছেন দায়িত্বশীলদের। বাংলাদেশ ইনিংসে দেড় ওভার খেলা হওয়ার পর কিউই এই অলরাউন্ডার টুইট বার্তায় লিখেন, ‘কত লক্ষ্য সেটি না জেনেই কি করে রান তাড়া করা সম্ভব? নেহায়েত পাগলামি!’

এর তিন মিনিট পর আরেকটু টুইট করেন নিশাম। ‘ক্রিকইনফো’র বাংলাদেশ ক্রীড়া প্রতিনিধি মোহাম্মদ ইসামের ১৬ ওভারে ১৪৮ রানের লক্ষ্য লেখা টুইটে রিটুইট করে নিশাম লিখেন, ‘এখন তারা জানলো এই লক্ষ্যটা সঠিক নয়!’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *