অসুস্থ দরিদ্র শিশুদের চিকিৎসার জন্য পেলের রেকর্ড ভাঙা বুট নিলামে তুললেন মেসি

অন্যান্য খবর

একাধিকবার দলের প্রয়োজনে জ্বলে উঠেছেন, জিতিয়েছেন দলকে, শুধুর দলের হয়ে হয়ে নয়, প্রয়োজনে অসহায় মানুশদের পাশে দাঁড়াতেও যে ভোলেন না লিও ফের তার প্রমাণ পাওয়া গেল। আধুনিক ফুটবলের যাদুকরের আরেকটি মানবিক রূপ দেখল ফুটবল গোটা বিশ্ব। এবার বার্সেলোনার অসহায় শিশুদের চিকিৎসার জন্য পেলের রেকর্ড ভেঙে ক্লাবের হয়ে সর্বোচ্চ গোল করার সেই ঐতিহাসিক বুট নিলামে তুললেন লিওনেল মেসি।


ডিসেম্বরে ভ্যালেদোলিদের বিপক্ষে বার্সার হয়ে যে বুট জোড়া পায়ে ৬৪৪তম গোল করে পেলের রেকর্ড ভাঙেন, সেই বুটজোড়াই নিলামে তুলেছেন ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

জানা গেছে, স্পেনের কাতালুনিয়ার ন্যাশনাল আর্ট মিউজিয়ামে নিলাম পরিচালনা করবে। বুট বিক্রি করে পাওয়া অর্থ প্রদান করা হবে বার্সেলোনার হাসপাতাল ইউনিভার্সিতারো ভল ডি’হেবরনের প্রকল্পে। অসুস্থ শিশুদের নিয়ে কাজ করে থাকে এই হাসপাতাল।

বিখ্যাত খেলাধুলার সামগ্রীর জায়ান্ট অ্যাডিডাসের নেমিজিজ মেসি ১৯. ১—মডেলের বুট পায়ে পেলের রেকর্ড ভেঙেছিলেন মেসি। নিলামে তোলা মেসির বিশেষ এই দুটি বুটেই তার সই আছে। সাথে তাঁর স্ত্রী রোকুজ্জো ও তিন সন্তানের নাম ও জন্মতারিখও লেখা আছে। ধারণা করা হচ্ছে, লিওনেল মেসির এই বুট জোড়া বিক্রি করে প্রায় সাড়ে ৫৭ হাজার ইউরো আসবে।

এ প্রসঙ্গে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সংবাদমাধ্যমকে জানান, “এক ক্লাবের হয়ে ৬৪৪ গোলের রেকর্ড গড়তে পেরে খুব ভালো লেগেছিল। কিন্তু সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো যেসব শিশু জীবন নিয়ে লড়ছে তাদের জন্য কিছু করা। আশা করি এ নিলাম তাতে সহায়তা করবে। এটাই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ।”

শুধু বুটজোড়া দান নয়, করোনাকালীন সময়ে লাতিন আমেরিকার দারিদ্র ফুটবলারদের পাশেও দাঁড়িয়েছেন লিওনেল মেসি। জানা গেছে কনমেবলকে নিজের সই করা তিনটি টি–শার্ট দিয়েছেন মেসি। চীনের ওষুধ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান সিনোভ্যাক তা গ্রহণের বিনিময়ে ৫০ হাজার টিকা পাঠাবে। কনমেবলের ডিরেক্টর অব ডেভেলপমেন্ট গঞ্জালো বেলোসো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে টুইট করেন, ‘কনমেবলের জন্য ৫০ হাজার টিকাপ্রাপ্তির খবরে জানাতে চাই, সিনোভ্যাকের পরিচালকেরা বিশেষ ধন্যবাদ জানিয়েছেন লিওনেল মেসিকে। তিনি তিনটি টি–শার্ট পাঠিয়েছেন। অর্থাৎ, তিনিও এই অর্জনের অংশ।’

দক্ষিণ আমেরিকার ২৫ হাজার ফুটবলারকে এই ৫০ হাজার ডোজ করোনা ভ্যাকসিন কিনে দিচ্ছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *