কলকাতায় অস্ত্রোপচার করতে যাওয়া জীবনের পুরো দায়িত্ব নিয়েছেন ভারতের ডিফেন্ডার প্রীতম

বাংলাদেশ ফুটবল

গেল শনিবার কলকাতার একটি হাসপাতালে জাতীয় দলের ফরোয়ার্ড নাবীব নেওয়াজ জীবনের পায়ে সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে। জীবন নিজেই হাসপাতালের বিছানা থেকে অস্ত্রোপচারের কথা জানিয়েছেন। জানা গেছে, জীবনের কঠিন মুহুর্তে পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন প্রতিবেশী দেশ ভারতের ডিফেন্ডার প্রীতম কোটাল। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন জীবন নিজেই।


প্রীতমের এই ব্যবহারে মুগ্ধ নাবিব হয়েছেন নাবিব নেওয়াজ জীব। তিনি বলেন, ‘‘আমি কলকাতায় কাউকেই চিনি না। শুরু থেকেই প্রীতম আমার খেয়াল রেখেছে। চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করার পাশাপাশি অস্ত্রোপচারের দিন ও তার পরের দিন ও আমার সঙ্গে দেখা করে গিয়েছে।’’

প্রীতম বলেন, ‘‘যে দেশেরই ফুটবলারই হোক আগে তো ও একজন মানুষ। তাই সাহায্য করার আগে দু’বার ভাবিনি। ১৩ এপ্রিল ও একাই আসে কলকাতায়। আমি যোগাযোগ করে দিই ডাক্তারদেরর সঙ্গে। বাংলাদেশের আর একজন ফুটবলার রায়ানের সঙ্গে আমার যোগাযোগ রয়েছে। ওর মাধ্যমেই নাবিব যোগাযোগ করে।’’

তবে এখনও বাড়ি ফেরা নিয়ে চিন্তায় নাবিব। বুধবার ২১ এপ্রিল তাঁর বাড়ি ফেরার টিকিট কাটা থাকলেও করোনার কারণে লকডাউন বেড়ে যাওয়ায় ঢাকায় ফেরা নিয়ে দুশ্চিন্তায় র‍য়েছেন তিনি। নাবিব বলেন, ‘‘আমার বুধবার টিকিট কাটা রয়েছে। কিন্তু শুনলাম লকডাউন এক সপ্তাহ বাড়বে দেশে। এখন কী ভাবে দেশে ফিরব তা বুঝতে পারছি না।’’

তবে নাবিবের দেশে ফেরার দায়িত্বও নিচ্ছেন প্রীতম। তিনি বলেন, ‘‘বুধবার ওর ফেরার কথা থাকলেও ঢাকাতে লকডাউন থাকায় ও ফিরতে পারছে না। দেখি কীভাবে নাবিবকে ওর দেশে ফেরান যায়। কিছু একটা ব্যবস্থা তো করতেই হবে।’’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *