টি-টোয়েন্টির চূড়ার আরো কাছে বাবর আজম

ক্রিকেট

গত সপ্তাহে আইসিসি ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে ওঠা বাবর আজম এবার ছুটছেন টি-টোয়েন্টির চূড়ার দিকে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দারুণ পারফরম্যান্সে এই সংস্করণের ব্যাটসম্যানদের তালিকায় পাকিস্তান অধিনায়ক জায়গা করে নিয়েছেন দুইয়ে।

পাকিস্তান-দক্ষিণ আফ্রিকার টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ দুই ম্যাচের পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করে বুধবার র‍্যাঙ্কিংয়ের হালনাগাদ প্রকাশ করে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্তা সংস্থা।

চার ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ১২২ রানের ইনিংস খেলেন বাবর। দেশের হয়ে এই সংস্করণে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান করে র‍্যাঙ্কিংয়ে তিনি এগিয়েছেন এক ধাপ। ৪৭ রেটিং পয়েন্ট পেয়ে টপকে যান অস্ট্রেলিয়ার অ্যারন ফিঞ্চকে।

৮৯২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আগের মতোই আছেন ইংল্যান্ডের ডেভিড মালান। বাবরের রেটিং পয়েন্ট ৮৪৪। নিউ জিল্যান্ডের ডেভন কনওয়ে আছেন চারে ও ভারতের বিরাট কোহলি পাঁচ নম্বরে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে পারফর্ম করে আবারও শীর্ষে ফেরার সুযোগ রয়েছে বাবরের। গত বছরের নভেম্বরে জায়গাটি তিনি মালানের কাছে হারিয়েছিলেন।

র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে ফখর জামানেরও। শেষ দুই ম্যাচে মোট ৬৮ রান করে তিনি এগিয়েছেন ১৭ ধাপ, আছেন ৩৩তম স্থানে। তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে অপরাজিত ৭৩ রান করে ক্যারিয়ার সেরা ১৫ নম্বরে উঠে এসেছেন পাকিস্তানের কিপার-ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান।

দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ছয় ধাপ এগিয়েছেন রাসি ফন ডার ডাসেন। উন্নতি হয়েছে এইডেন মারক্রাম ও ইয়ানেমান মালানের।

বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা ১১তম স্থানে ফিরেছেন পাকিস্তানের পেসার শাহিন শাহ আফ্রিদি। উপরে উঠেছেন ফাহিম আশরাফ, মোহাম্মদ নওয়াজ, হারিস রউফ। উন্নতি হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার বাঁহাতি স্পিনার জর্জ লিন্ডেরও।

টি-টোয়েন্টি বোলারদের তালিকার শীর্ষ স্থানগুলোতে আসেনি পরিবর্তন। সবার ওপরে যথারীতি দক্ষিণ আফ্রিকার বাঁহাতি রিস্ট স্পিনার তাবরাইজ শামসি। পরের চারটি স্থানে আছেন যথাক্রমে রশিদ খান, অ্যাশটন অ্যাগার, আদিল রশিদ, মুজিব-উর-রহমান।

অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়েও হয়নি কোনো বদল। শীর্ষে আছেন মোহাম্মদ নবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *