২৫ বছর পর লজ্জায় ডুবলো আর্সেনাল

ক্লাব ফুটবল

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে আর্সেনালের বিপক্ষে দারুন এক জয় পেয়েছে এভারটন। এমিরেটস স্টেডিয়ামে স্বাগতিকদের ০-১ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছে কার্লো এনচেলোত্তির দল। ১৯৮৬ সালের পর এবারই প্রথম আর্সেনালের ঘরের মাঠে জয়ের স্বাদ পেলো রিচার্লিসনরা।

যদিও আর্সেনালের মাঠে দুই যুগেরও বেশি সময় পরে পাওয়া জয়ে গোল করতে পারেননি এভারটনের কোন খেলোয়াড়। অবিশ্বাস্য, অমার্জনীয় এক ভুল করে বসেন গানার্স গোলরক্ষক বার্নড লেনো। কোনোরকম বিপদের শঙ্কা যেখানে ছিল না, সেখানেই তালগোল পাকিয়ে ফেলেন তিনি। এতেই ভীষণ বাজে সময়ের মধ্যে দিয়ে যাওয়া আর্সেনাল আবারও হেরে বসে।

আর্সেনালের ঘরের মাঠ এমিরেটস স্টেডিয়ামে শুক্রবার রাতে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি লেনোর ওই আত্মঘাতী গোলেই জিতেছে এভারটন। এবারের প্রিমিয়ার লিগে দুই লেগেই আর্সেনালকে হারাল এভারটন। গত ডিসেম্বরে প্রথম দেখায় গুডিসন পার্কে ২-১ গোলে হেরেছিল মিকেল আর্তেতার দল। এখানেও আছে আরও একটি অনবদ্য রেকর্ড; ১৯৮৬ সালের পর এবারই প্রথম লিগে এক মৌসুমের দুই ম্যাচেই আর্সেনালকে হারানোর স্বাদ পেলো এভারটন।

ঘরের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকে বল দখলে এগিয়ে থাকলেও আক্রমণে তেমন সুবিধা করতে পারছিল না আর্সেনাল। প্রথমার্ধে উল্লেখযোগ তিনটি সুযোগের সবকটিই পায় এভারটন। তবে কাছ থেকে ডমিনিক ক্যালভার্ট-লুইনের লক্ষ্যভ্রষ্ট হেডের পর রিশার্লিসনের শট ঠেকিয়ে দেন লেনো। আর ৪০তম মিনিটে আইসল্যান্ডের মিডফিল্ডার গিলফি সিগুর্দসনের দারুণ ফ্রি কিক ক্রসবারে বাধা পায়।

দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে দানি সেবাইয়োস ডি-বক্সে ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি পায় আর্সেনাল। তবে আক্রমণের শুরুতে নিকোলাস পেপে কিঞ্চিৎ ব্যবধানে অফসাইডে থাকায় ভিএআরের সাহায্যে সিদ্ধান্ত পাল্টান রেফারি।

৭৬তম মিনিটে ডান দিকের বাইলাইন থেকে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রিশার্লিসনের নেওয়া শটে কোনো হুমকি ছিল না। সেটাই ধরতে গিয়ে তালগোল পাকালেন জার্মান গোলরক্ষক লেনো। বল তার ডান পায়ে লেগে খুঁজে নেয় ঠিকানা।

৩২ ম্যাচে ১৫ জয় ও সাত ড্রয়ে ৫২ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম স্থানে এভারটন। এক ম্যাচ বেশি খেলা আর্সেনাল ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে আছে তার পরে। ৩৩ ম্যাচে ৭৭ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপা জয়ের খুব কাছে ম্যানচেস্টার সিটি। এক ম্যাচ কম খেলা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ১১ পয়েন্ট কম নিয়ে দুই নম্বরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *