শেষ মুহূর্তে গোলে কপাল পুড়লো লিভারপুলের

ক্লাব ফুটবল

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে আবারও ড্র করে পয়েন্ট হারিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল। এই ড্রয়ে শীর্ষ চারে থেকে মৌসুম শেষ করার আশাও যেন কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে লিভারপুলের জন্য। সেরা চারে না থাকলে পরবর্তী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও খেলা হবে না অল রেডদের।

ম্যাচের একেবারে অন্তিম মুহূর্তের খেলা তখন চলছে। ঘরের মাঠে ১-০ গোলে এগিয়ে থাকায় জয়ের সুবাসই পাচ্ছিলো ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। যদিও জয়ের সেই আশায় শেষ মেষ দুরাশায় পরিণত হলো অ্যানফিল্ডের দলটির। ড্র নিয়ে যে মাঠ ছাড়তে পেরেছে এটাও বা কম কিসে! কেননা শেষ দিকে এসে দুইবার লিভারপুলের জালে জড়ায় বল; একটি বাতিল হওয়াতে এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে সক্ষম হয় স্বাগতিকরা।

যদিও ঘরের মাঠে ম্যাচের শুরুটা ছিলো একেবারেই অন্যরকম। তৃতীয় মিনিটেই মোহাম্মদ সালাহর গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। এই গোলটিতেই আবার একটি রেকর্ডও গড়েছেন এই মিশরীয় তারকা। আজকের গোলটি ছিল চলতি মৌসুমে ইপিএলে সালাহর ২০তম গোল। ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে লিভারপুলের জার্সিতে তিনটি ভিন্ন মৌসুমে ২০ গোল করার কীর্তি গড়লেন তিনি।

পুরো ম্যাচে এরপর অনেকগুলো আক্রমন করে লিভারপুল। কিন্তু কোনবারই আর গোলের দেখা পায়নি। উল্টো নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর ইনজুরি টাইমের তৃতীয় মিনিটে গোল হজম করে লিভারপুল। যদিও গোলটি বাতিল হয়ে যায়। কেননা গোলের আগে হ্যান্ডবল হয়েছিল। কিন্তু প্রথমবার বাঁচলেও দুই মিনিট পর আর বাঁচতে পারেনি লিভারপুল। শেষ মুহূর্তে সমতা টানেন নিউ ক্যাসেলের জো উইলক।

শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র করেই মাঠ ছাড়তে বাধ্য হয় ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। ৩৩ ম্যাচে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ষষ্ঠস্থানে নেমে গেছে লিভারপুল। সমান ম্যাচে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের ১৫ নম্বরে আছে নিউ ক্যাসেল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *