সাকিবের একাদশে ফেরার সম্ভাবনা প্রায় শেষ করে দিলেন নারাইন

আইপিএল

সাকিবের পরিবর্তে একাদশে সুযোগ পেয়ে প্রথম দুই ম্যাচে সুবিধা করতে পারেননি সুনিল নারাইন। বলা যায়, আজকে পাঞ্জাবের বিপক্ষে ম্যাচে খারাপ করলেই পরের ম্যাচে তার জায়গায় সুযোগ পেতে পারতেন সাকিব। কিন্তু শেষ মুহুর্তের আজকের ম্যাচেই জ্বলে উঠলেন নারাইন। দুর্দান্ত বোলিংয়ে বলা যায় পাঞ্জাবকে ধ্বসে দিয়েছেন তিনি। নাইট বোলারদের দাপটে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে টেনেটুনে ১২৩ রান তুলেছে পাঞ্জাব কিংস।

আহমেদাবাদে পাঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে টসে জিতে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় কলকাতা নাইট রাইডার্স। নেতা মর্গ্যানের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে প্রথম থেকেই লাইন এবং লেন্থ ধরে বল করতে থাকেন কেকেআরের ক্রিকেটাররা। চার-ছয় তো দুর, এক কিংবা দুই রান নিতেও সমস্যায় পড়ে যান পাঞ্জাবের দুই ওপেনার। অধৈর্য হয়ে মারতে গিয়ে প্যাট কামিন্সের বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক কেএল রাহুল। তিনি ২০ বলে ১৯ রান করেন। দুটি চার ও একটি ছক্কা আসে তাঁর ব্যাট থেকে।

নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামের স্পোর্টিং উইকেটের সুবিধা নিতে ব্যর্থ হন বিধ্বংসী ক্রিস গেইলও। কোনও রান না করেই সাজঘরে ফিরে যান ইউনিভার্স বস। পয়েন্ট ফিল্ডারের হাতে সহজ ক্যাচ দিয়ে আউট হন দীপক হুডা। ৪ বল খেলে ১ রানের বেশি করতে পারেননি হরিয়ানার অল রাউন্ডার। ধীরে ধীরে পাঞ্জাবের ইনিংস গঠনের কাজ চালিয়ে যাওয়ার মরিয়া চেষ্টা চালিয়ে যান ওপেনার মায়াঙ্ক আগরওয়াল। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত করে যান নিকোলাস পুরান। অল্প সময়ে দুই ক্রিকেটারের মধ্যে ১৮ রানের পার্টনারশিপ।

বাকিদের মতো দ্রুত রান করার প্রচেষ্টায় নিজের উইকেট খুইয়ে ফেলেন মায়াঙ্ক আগরওয়াল। ৩৪ বলে ৩১ রান করা এই ব্যাটসম্যানকে ফেরান সুনীল নারিন। দুর্দান্ত ক্যাচ নেন রাহুল ত্রিপাঠী। নারিনের ঘূর্ণি পড়তে ভুল করে মাত্র ২ রান করে বোল্ড হয়ে যান মোয়েসেস হেনরিকস। এতেই চাপে পড়ে পাঞ্জাব

পরের ওভারেনিকোলাস পুরানকে (১৯) আউট করেন বরুণ চক্রবর্তী। এরপর শেষ বেলায় ব্যাট চালিয়ে পাঞ্জাবকে ১২৩ রানে পৌঁছে দেন ক্রিস জর্ডন। ১৭ বলে ৩০ রান করেন ক্রিস। ৩টি ছক্কা ও ১টি চার আসে তাঁর ব্যাট থেকে।

কেকেআরের হয়ে ৪ ওভারে মাত্র ২২ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন নারাইন। তার এমন পারফরম্যান্স নিশ্চয়ই একাদশকে সাকিবকে ফেরাতে আরো প্রতিক্ষা বাড়িয়ে তুলল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *