শেষ দুই বলে টানা বাউন্ডারি; তারপরও রোমাঞ্চকর ম্যাচে দিল্লির ১ রানের হার (Match Highlights)

আইপিএল

শেষ ওভারে জয়ের জন্য দরকার ছিল ১৪ রান। শেষ দুই বলে রিষভ প্যান্ট হাকালেন দুইটি বাউন্ডারি, কিন্তু তারপরও ১ রানের হার নিয়ে মাঠ ছড়াতে হলো দিল্লি ক্যাপিটালসকে।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলের ২২তম ম্যাচে শ্বাসরুদ্ধকর লড়াইয়ে ১ রানের দুর্দান্ত জয় হাসিল করেছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। এই জয়ের ফলে ৬ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকার প্রথম স্থানে উঠে এল কোহলির দল।

১৭২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দিল্লি শুরুটা আহামরি হয়নি। মাত্র ৬ রান করে সাজঘরে ফিরে যান ওপেনার শিখর ধাওয়ান। স্টিভ স্মিথের ব্যাট থেকে ৪ রানের বেশি আসেনি। এরপর দ্রুতই ফেরেন আরেক ওপেনার পৃথ্বী শ।১৮ বলে ২১ রান করে হর্ষল প্যাটেলের শিকার হন ডান হাতি ব্যাটসম্যান। ১৭ বলে ২২ রান করে আউট হন মার্কাস স্টইনিস।

ক্রিজের অন্যদিক আঁকড়ে ধরে রাখেন ঋষভ পান্থ। ছয় নম্বরে ব্যাট করতে নেমে চালিয়ে ব্যাট করেন শিমরোন হেটমায়ার। কিন্তু পান্থ ছিলেন অনেকটা ধিরগতির। ২৩ বলে ঝড়ো ফিফটি তুলে নেন হেটমায়ার। শেষ পর্যন্ত অবশ্য দলকে জেতাতে পারেননি অপরাজিত থেকেও। যদিও এর দায়টা অধিনায়ক পান্থের উপরই বর্তায়।

শেষ ৪ বলে জিততে দরকার ছিল ১২ রান। কিন্তু শেষ ২ বলে সমীকরণ হয় ১০ রানে। পরপর দুই বল বাউন্ডারি মারলেও ১ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় দিল্লিকে। ৪৮ বলে ৫৮ রানে অপরাজিত থাকেন পান্থ। অন্যদিকে ২৫ বলে ৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন হেটমায়ার।

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নামে ব্যাঙ্গালোর। শুরুতেই অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও ওপেনার দেবদূত পাড্ডিকেল উইকেট নিয়ে আরসিবি-কে ধাক্কা দেন আবেশ খান ও ইশান্ত শর্মা। ১১ বলে ১২ রান করে বোল্ড হন বিরাট কোহলি। ১৪ বলে ১৭ রান করে একই কায়দায় আউট হন দেবদত্ত পাড়িক্কল।


৩০ রানে ২ উইকেট হারানো ব্যাঙ্গালোরের ইনিংসকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার মরিয়া চেষ্টা চালান গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও রজত পতিদার। যদিও কিছুক্ষণ বাদেই তুলে মারতে গিয়ে লং অন ফিল্ডারের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন অস্ট্রেলিয় ব্যাটসম্যান। তাঁর ২০ বলে ২৫ রানের ইনিংস একটি চার ও দুটি ছক্কা দিয়ে সাজানো।

এরপর একাই দলকে টানেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। ৪২ বলে ৭৫ রানের ইনিংস খেলে আরসিবি-র স্কোর ১৭১ পর্যন্ত নিয়ে যান অভিজ্ঞ এই প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান।


দেখুন ম্যাচের হাইলাইটসটিঃ-

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *