গ্রানাডা ধাক্কায় ‘ডুবে গেলো’ বার্সার শিরোপাস্বপ্ন!

Uncategorized

গ্রানাডার বিপক্ষে জিতলেই শীর্ষে উঠার সুযোগ ছিলো বার্সেলোনার। শুরুতে এগিয়ে গিয়ে সেই আশা আরও চওড়া করে রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা। কিন্ত ১৬ মিনিটের ব্যবধানে দুইবার বল জালে জড়িয়ে বার্সার শীর্ষস্থান দখলের স্বপ্নকে ‘অপূর্ণ স্বপ্নই’ বানিয়ে দিলো গ্রানাডা।

যদিও ম্যাচের শুরুটা দেখে মনেই হয়নি এমন কিছু হবে আজ। ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যুতে হওয়া এই ম্যাচে গ্রানাডার রক্ষণে একের পর এক আক্রমন শানিয়ে নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে স্বাগতিকরা।

গোলের দেখা পেতে অবশ্য অপেক্ষা করতে হয় ২০ মিনিটেরও বেশি সময়। ম্যাচের ২৩তম মিনিটে লিওনেল মেসির করা গোলে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। ডি বক্সের বাম দিক থেকে গ্রীজম্যানে বাড়ানো বল একটু সামনে এগিয়ে নিয়ে দুরূহ কোন থেকে জোড়ালো শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করে জালে পাঠিয়ে উল্লাসে মাতেন এই ক্ষুদে জাদুকর।

প্রথমার্ধে আরও কয়েকটি সুযোগ আসে বার্সার সামনে কিন্ত ফরওয়ার্ডদের ব্যর্থতায় ব্যবধান বাড়ানো হয়নি ব্লগ্রানাদের। প্রথমার্ধের শেষে মেসির করা সেই এক গোলেই এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বার্সেলোনা।

দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য ঘুরে দাঁড়ায় গ্রানাডা। ৬২তম মিনিটে গোল করে খেলায় সমতা ফেরান ম্যাচিস। এই গোলে অবশ্য দায় এড়াতে পারেন না বার্সার রক্ষণভাগের তারকা মিনগুয়েজা। তার পা থেকে বল ফসকে না গেলে হয়তো পুরো খেলার ফলই অন্যরকম হতে পারতো।

সমতায় ফেরার পর বার্সার উপর আরও চড়াও হয় খেলতে থাকে গ্রানাডা। ৭৮তম মিনিটে একেবারেই ফ্রি হেডারে টার স্টেগানকে বোকা বানিয়ে বল জালে জড়িয়ে বুনো উল্লাসে মাতেন মোলিনা।

বাকি সময়ে অনেক চেষ্টা করেও জালের দেখা পায়নি বার্সার ফুটবলাররা। যে কারনে শীর্ষে উঠার সুযোগ থাকলেও তা হেলায় হারিয়েই মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।

বার্সার এই পরাজয়ে এখন পর্যন্ত হওয়া ৩৩ ম্যাচে ৭৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রাখলো অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা দুই দলেরই সংগ্রহ ৭১ পয়েন্ট।

এখনও অবশ্য বার্সার শিরোপাস্বপ্ন শেষ হয়ে যায়নি। অবশিষ্ট থাকা ৫ ম্যাচের সবগুলো জিতলে কোনরকম সমীকরণ মেলানো ছাড়ায় লা লিগার শিরোপা ঘরে তুলবে কাতালানরা। কিন্ত সে পথ পাড়ি দিতে পারবে তো বার্সা? কেননা পথটা যে বন্ধুর!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *