কোহলিদের উড়িয়ে দিয়ে কলকাতাকে নিচে নামালো পাঞ্জাব

আইপিএল

লোকেশ রাহুলের অসাধারণ ইনিংসের পর হারপ্রীতের দুর্দান্ত বোলিংয়ে কোহলির আরসিবিকে ৩৪ রানে হারালো পাঞ্জাব কিংস। এই জয়ে ৬ নম্বর থেকে এক ধাপ এগিয়ে পাঁচে এসেছে লোকেশ রাহুলের দল। আর তাতেই পাঁচ থেকে ছয়ে নেমে গেছে কলকাতা। যথারীতি তিনেই আছে আরসিবি।


এদিন আগে ব্যাট করতে নেমে কোহলিদের জয়ের জন্য ১৮০ রানের টার্গেট দেয় পাঞ্জাব কিংস। রান তাড়া করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৪৫ রানে থমকে যায় আরসিবি।

জয়ের জন্য ১৮০ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ১৯ রানের মাথায় রাইলে মেয়ারডিথের বলে ৭ রান করে বোল্ড হন পাডিক্কাল। এরপর রজত পাতিদারকে নিয়ে দলের রান এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন আরসিবি অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এরপরই ব্রারের চমক। একাদশ ওভারের প্রথম বলে বিরাট কোহলিকে বোল্ড করে নিজের প্রথম আইপিএল উইকেট দখল করেন হারপ্রীত ব্রার। ৩৪ বলে ৩৫ করে ফেরেন বিরাট। এর পরের বলেই গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকেও বোল্ড করেন হরপ্রীত।

এরপর ১৪তম ওভারে বল করতে এসে তিন রান করা এবি ডি ভিলিয়ার্সকে আউট করে ম্যাচ পাঞ্জাবের দিকে ঝোঁকান ব্রার। চার ওভারে একটি মেডেন-সহ ১৯ রানে তিন উইকেট নেন তিনি।

৬৯ রানে চার উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে আরসিবি। ৩১ রান করা রজত পাতিদারকে ফেরান ক্রিস জর্ডান। ১৬তম ওভারের চতুর্থ ও পঞ্চম বলে শাহবাজ আহমেদ ও ড্যানিয়েল সামসের উইকেট তুলে নেন রবি বিষ্ণোই। শেষ দিকে হার্ষাল প্যাটেলে ১৩ বলে ৩১ রানে ঝড়ে হারের ব্যবধান কমায় আরসিবি।

এর আগে, টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ১৭৯ রান করেছিল পাঞ্জাব কিংস। সর্বাধিক ৯১ রানে অপরাজিত থাকেন রাহুল। ২৫তম আইপিএল অর্ধশতরান তথা চলতি আইপিএলের চতুর্থ অর্ধশতরান করে তাঁর রান এখন ৩৩০। ক্রিস গেইল করেন ৪৬। ব্রার শেষ দিকে নেমে অপরাজিত থাকেন ২৫ রানে।

    সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

পাঞ্জাব কিংস: ২০ ওভারে ১৭৯/৫(রাহুল ৯১*, গেইল ৪৬; জেমিসন ২/৩২, শাহবাজ ১/১১)

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর: ২০ ওভারে ১৪৫/৮(কোহলি ৩৫, প্যাটেল ৩১; ব্রার ৩/১৯, বিষ্ণয়ই ২/১৭)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *