সেরা র‍্যাঙ্কিংয়ে তাসকিন, সাকিবকে টপকে গেলেন তাইজুল; তামিমের বড় লাফ

বাংলাদেশ ক্রিকেট

লঙ্কায় দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশের অর্জন বলতে এক টেস্ট ড্র। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিে প্রথম পাওয়া পয়েন্ট। তবে টেস্ট সিরিজ থেকে দলের অর্জন তেমন না থাকলেও ব্যক্তিগত অর্জনে উজ্জ্বল ছিলেন বেশ কিছু ক্রিকেটার। যেকারণে আইসিসির নতুন প্রকাশিত টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়েও উন্নতি করেছেন বেশ কিছু ক্রিকেটার।


দুই টেস্টে দুইবার ৯০ এর ঘরে গিয়ে ফিরতে হয়েছে তামিমকে। টাইগার এই ওপেনার দলকে জেতাতে পারেননি তবে র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি করেছে। ৪ ইনিংসে ২৮০ রান করে আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যান র‍্যাংকিংয়ে ৩ ধাপ উন্নতি হয়েছে এই বামহাতি ওপেনারের। ৬১১ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তামিম উঠে এসেছেন ৩০ থেকে ২৭ নাম্বারে। উন্নতি করেছেন মুশফিক-মুমিনুলও ৬৪০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ২১ তম স্থানে উঠে এসেছেন মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে উপরে আছেন তিনিই। ১ ধাপ এগিয়ে ৩০ নাম্বারে উঠে আসা মুমিনুল হকের রেটিং পয়েন্ট ৫৯০।

বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ টেস্টে সেঞ্চুরি করা লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে ১০ ধাপ এগিয়ে উঠে এসেছেন ১১ নাম্বারে। এক নাম্বারে আছেন উইলিয়ামসন। দুই এবং তিন নাম্বারে আছেন যথাক্রমে স্টিভ স্মিথ এবং মার্নাস লাবুশেন।

অন্যদিকে, বোলিংয়ে ৭ বছর পর তাইজুল ইসলাম বিদেশের মাটিতে ৫ উইকেট নিয়েছেন। যা তাকে এগিয়ে দিয়েছে তিন ধাপ। পিছনে ফেলেছেন সাকিব আল হাসানকে। ৩ ধাপ এগিয়ে তাইজুলের অবস্থান ২৪ নাম্বারে। এক ধাপ পিছিয়ে সাকিব আছেন ২৭ নাম্বারে। এক ধাপ পিছিয়ে মেহেদি হাসান মিরাজ আছেন ২৯ নাম্বারে।

তবে সবচেয়ে বড় লাফ দিয়েছেন তাসকিন আহমেদ। ক্যারিয়ারে প্রথমবার ঢুকে পড়েছেন সেরা ১০০ জনের মধ্যে। বড় লাফ দিয়ে উঠে এসেছেন ৯৪ নম্বরে।

বোলারদের মধ্যে পাকিস্তানের হাসান আলি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৯ উইকেট নিয়ে ১৫ ধাপ এগিয়েছেন। উঠে এসেছেন ১১তম স্থানে। শ্রীলঙ্কার অভিষিক্ত জয়াবিক্রমা বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ টেস্টে নিয়েছিলেন ১১ উইকেট। যে কারণে প্রথম বারেই উঠে এসেছেন ৪৮ নাম্বারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *