সপ্তম ভারতীয় হিসেবে নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলে রাচিন (রাহুল+শচিন)

ক্রিকেট

দীপক প্যাটেল, জিতন প্যাটেল, রনি হীরা, তরুণ নেথুলা, জিত রাভাল, ঈশ সোধির পর সপ্তম ভারতীয় বংশোদ্ভূত হিসেবে নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন তরুণ ক্রিকেটার রাচিন রবিন্দ্র।

রাচিনের বাবা রবি কৃষ্ণমূর্তির বেড়ে ওঠা ভারতের বেঙ্গালুরুতে। ভারতে থাকাকালীন তিনি নিজেও খেলতেন ক্রিকেট। সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে নব্বইয়ের দশক থেকে রবি স্ত্রী দীপাকে নিয়ে পাড়ি জমান নিউজিল্যান্ডে।

এরপর ১৯৯৯ ওয়েলিংটনে জন্ম নেয় তাদের ছেলে সন্তান। ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার রাহুল দ্রাবিড় ও শচিন টেন্ডুলকারের নামের সঙ্গে মিলিয়ে নাম রাখা হয় রাচিন।

বয়স ভিত্তিক দল পেরিয়ে এবার কিউই জাতীয় দলে সেই ছোট্ট ছেলেটি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুটি টেস্ট ও ভারতের বিপক্ষে আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল খেলতে ইংল্যান্ডে অবস্থান করছে উইলিয়ামস বাহিনী। আর ২০ সদস্যের এই স্কোয়াডে রয়েছেন বাহাতি স্পিনিং অলরাউন্ডার রাচিনও।

রাচিন ২০১১ সাল থেকে ক্রিকেট খেলছেন। হাট হকস ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে হাতেখড়ি। ১৬ বছর বয়সে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ মাতান। ২০১৬ যুব বিশ্বকাপে নজর কাড়া পারফরম্যান্স করেন। ২০১৯ অনূর্ধ্ব বিশ্বকাপও খেলেছেন।

২২ বছর বয়সী রাচিন ২৬টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন। নামের পাশে রয়েছে ১ হাজার ৪৭০ রান। তিনটি শতক ও ৯টি অর্ধশতক রয়েছে। সর্বোচ্চ রান অপরাজিত ১৪৪। উইকেট তুলেছেন ২২টি।

১২টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচে রান তুলেছেন ৩১৬। ১টি করে শতক ও অর্ধশতক করেছে। সর্বোচ্চ ১৩০ রানের ইনিংস খেলেছেন। ৮ উইকেটও রয়েছে তার।

এছাড়া টি-টোয়েন্টিতে ২২ ম্যাচে ২৯১ রান তোলার পাশাপাশি ১৯ টি উইকেট শিকার করেছেন রাচিন।

উল্লেখ্য, আগামী ২ ও ১০ জুন ইংলিশদের বিপক্ষে মাঠে নামবে নিউজিল্যান্ড। ১৮ জুন টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে ভারতের মুখোমুখি হবে ব্ল্যাকক্যাপসরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *