পাপনের প্রশ্ন, লিটন ওপেনিয়ে কেন? কপাল খুললো সৌম্যর

বাংলাদেশ ক্রিকেট

সামর্থ্য নিয়ে সংশয় নেই, লিটন দাসের সমস্যা ধারাবাহিকতার। গত বছর সেই অপবাদ গুছিয়ে ধারাবাহিক রান পাওয়া শুরু করেছিলেন তিনি। তবে ওয়ানডেতে ৭ ম্যাচ থেকে তার ব্যাটে আবার চলছে রান খরা। এইজন্য এই ব্যাটসম্যানের ওপেনিং পজিশন থেকে সরানোর মত দিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। তার মতে টি-টোয়েন্টি ছাড়া অন্য ফরম্যাটে মিডল অর্ডারই হবে লিটনের আদর্শ ঠিকানা।

রোববার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে শুরুতেই আউট হন লিটন। দুশমন্ত চামিরার বলে ক্যাচ দেন কোন রান না করে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে রেকর্ড ১৭৬ রানের ইনিংসের পর এই নিয়ে সব শেষ ৭ ম্যাচে তিনি করলেন কেবল ৭৬ রান।

লিটনের ব্যর্থতার দিনে বাংলাদেশ ৬ উইকেটে ২৫৭ রান করে বাংলাদেশ। এরপর খেলার বিরতিতে গণমাধ্যমে বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন বোর্ড সভাপতি। লিটনের প্রসঙ্গ বিসিবি সভাপতি জানান একজন খেলোয়াড়ের খারাপ সময় আসতেই পারে, ‘একটা জিনিস মনে রাখতে হবে লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন এরা তিনজনই ভালো খেলোয়াড়। অনেকের অনেক খারাপ সময় যেতে পারে। সবার সব সময় এক রকম ফর্ম যায় না। এটা বুঝতে হবে।’

তবে এই খারাপ সময়ের পেছনে ব্যাটিং অর্ডারেরও একটা কারণ মাথায় এসেছে তার, ‘আমার ব্যক্তিগত মত হলো ও সব সময় পাঁচ-ছয় নম্বরে ভালো। যেটা আমার ধারণা। টি-টোয়েন্টিতে ওপেন করতে পারে। কিন্তু এমনিতে বাকি সব ফরম্যাটে (টেস্ট ও ওয়ানডেতে) ও পাঁচ-ছয় নম্বরে ভাল। কিন্তু এইগুলা নিয়ে ওদের সঙ্গে বসতে হবে। বসে কথা বলতে হবে। উপর থেকে চাপিয়ে দিতে চাচ্ছি না। আগে যেটা হতো এখন আর সেটা করি না।’

৪৩ ম্যাচের ক্যারিয়ারে ২৯ ম্যাচ ওপেন করেছেন লিটন। ক্যারিয়ার সেরা ১৭৬ রানসহ এই পজিশনে তার রান ৮৪৩। তিন সেঞ্চুরির সবগুলোই এসেছে ওপেন করে। গড়-৩০.১০। পাঁচ নম্বরে তিনি নেমেছেন ৪ ম্যাচে। বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অপরাজিত ৯৪ সহ এই পজিশনে তার রান ১৬৮, গড়- ৫৬.০০। ছয় নম্বরে এখনো ব্যাট করা হয়নি লিটনের। এছাড়া ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে তিন নম্বর পজিশনে তিনি খেলেছেন ৯ ম্যাচ। তাতে মাত্র ১৫.৮৭ গড়ে করেন ১২৭ রান।

ওদিকে বিসিবি সভাপতির এমন মন্তব্যর পর হয়ত কপাল খুলে যেতে পারে সৌম্য সরকারের। পরের ম্যাচে অধিনায়ক তামিম ইকবালের সাথে সৌম্য সরকার ওপেন করলে অবাক হবার কিছু থাকবে না।

ইতিমধ্যেই গুঞ্জন উঠছে লিটনকে ওপেনিং থেকে নামিয়ে পাঁচ-ছয় নম্বরে খেলানোর সম্ভাবনা প্রচুর। সে ক্ষেত্রে হয়ত কপাল পুড়বে মিঠুনের। তার জায়গায় লিটনকে খেলানো হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *