ডেথ গ্রুপে কঠিন সমীকরণ; জার্মানি, ফ্রান্স, পর্তুগাল, হাঙ্গেরি, কোন অঙ্কে কোন দল যাবে নকআউটে?

ইউরো ২০২০

জমে উঠেছে ইউরোর লড়াই। ‘গ্রুপ অফ ডেথ’ তথা গ্রুপ ‘এফ’ থেকে কোন দল শেষ ষোলোয় যাবে, তা নিয়ে হিসাব-নিকেশ চলছে। বিশেষত ইউরো কাপের নিয়ম অনুযায়ী, প্রতিটি গ্রুপের প্রথম দুই দল সরাসরি নক-আউট পর্বে যায়। সেই সঙ্গে সেরা চারটি তৃতীয় স্থানাধিকারী দলও শেষ ষোলোয় যেতে পারে।


আপাতত চার পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ ‘এফ’-এর শীর্ষে আছে ফ্রান্স। তিন পয়েন্ট আছে জার্মানি এবং পর্তুগালের ঝুলিতে। মুখোমুখি লড়াইয়ে জয়ের কারণে দ্বিতীয় স্থানে আছে জার্মানি। এক পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে হাঙ্গেরি। চারটি দলের কাছেই নক-আউট পর্বে যাওয়ার সুযোগ আছে। কোন কোন দল শেষপর্যন্ত শেষ ষোলোর টিকিট পাবে, তা জানা যাবে ২৪ জুন (ইংরেজি মতে তারিখ)। বুধবার রাত ১২ টা ৩০ মিনিটে (ভারতীয় সময়) মিউনিখে হাঙ্গেরির বিরুদ্ধে নামছে জার্মানি। আর বুদাপেস্টে লড়াই হবে পর্তুগাল এবং ফ্রান্সের ।

একনজরে দেখে নিন কোন কোন দল কোন অঙ্কে নক-আউট পর্বে যেতে পারে?

১) জার্মানি এবং পর্তুগাল জিতল। সেক্ষেত্রে দু’দলেরই পয়েন্ট হবে ছয়। দু’দলই সরাসরি নক-আউট চলে যাবে। চার পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থাকবে ফ্রান্স। এমবাপের দেশকে সেক্ষেত্রে অন্য গ্রুপের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। যদি সেরা চারটি তৃতীয় স্থানাধিকারী দলের মধ্যে থাকে ফ্রান্স, তাহলে তারাও শেষ ষোলোয় পৌঁছে যাবে।

২) জার্মানি এবং ফ্রান্স জিতল। সাত পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ লিডার হয়ে নক-আউটে পৌঁছে যাবে বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন দল। ফ্রান্সের সঙ্গী হবে দ্বিতীয় স্থানে থাকা জার্মানি। সেক্ষেত্রে পর্তুগালের কাজটা কঠিন হয়ে যাবে। কারণ তিন পয়েন্ট নিয়ে সেরা চারটি তৃতীয় স্থানাধিকারী দলের মধ্যে ঠাঁই পাওয়া বেশ কঠিন।

৩) হাঙ্গেরি এবং ফ্রান্স জিতল। সেক্ষেত্রে গ্রুপ শীর্ষে থেকে সরাসরি নক-আউটে পৌঁছে যাবে ফ্রান্স। দ্বিতীয় হবে হাঙ্গেরি। তার ফলে পুসকাসের দেশও সরাসরি শেষ ষোলোয় চলে যাবে। জার্মানি এবং পর্তুগাল তিন পয়েন্টে পড়ে থাকবে। তার ফলে সেরা চারটি তৃতীয় স্থানাধিকারী দলের মধ্যে ঠাঁই পাওয়া বেশ কঠিন।

৪) হাঙ্গেরি এবং পর্তুগাল জিতল। গ্রুপ শীর্ষে থেকে শেষ ষোলোয় পৌঁছে যাবে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। সঙ্গী হবে হাঙ্গেরি। তৃতীয় স্থানে থাকবে ফ্রান্স। লাস্ট বয় হবে জার্মানি। যদি সেরা চারটি তৃতীয় স্থানাধিকারী দলের মধ্যে থাকে ফ্রান্স, তাহলে তারাও শেষ ষোলোয় পৌঁছে যাবে।

৫) জার্মানি-হাঙ্গেরি এবং পর্তুগাল-ফ্রান্স ম্যাচ ড্র হল। সেক্ষেত্রে পাঁচ পয়েন্টে পৌঁছে যাবে ফ্রান্স। ফলে সরাসরি নক-আউটের টিকিট পাবেন করিম বেঞ্জেমারা। জার্মানি এবং পর্তুগালের পয়েন্ট হবে চার। সরাসরি শেষ ষোলোর টিকিট পাবে একটি দল। আপাতত দু’দলের পার্থক্য একই আছে। শেষ ম্যাচ ড্র করলে গোল পার্থক্যে তফাৎ হবে না। কিন্তু মুখোমুখি লড়াইয়ে পর্তুগালকে হারিয়ে দেওয়ায় দ্বিতীয় হয়ে নকআউটে চলে যাবে জার্মানি। সেরা চারটি তৃতীয় স্থানাধিকারী দলের মধ্যে থেকে শেষ ষোলোয় যাওয়ার একটা সুযোগ থাকবে পর্তুগালের সামনে।

৬) জার্মানি জিতল। পর্তুগাল-ফ্রান্স ম্যাচ ড্র হল। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে জার্মানি (ছ’পয়েন্ট)। দ্বিতীয় স্থানে থাকবে ফ্রান্স (পাঁচ পয়েন্ট)। তৃতীয় স্থানে থাকবে পর্তুগাল (চার পয়েন্ট)। ফলে সরাসরি নক-আউটে যাবে জার্মানি এবং ফ্রান্স। চারটি সেরা তৃতীয় স্থানাধিকারী দল হিসেবে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর দেশও যেতে পারে নক-আউটে।

৭) হাঙ্গেরি জিতল। পর্তুগাল-ফ্রান্স ম্যাচ ড্র হল। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে ফ্রান্স (পাঁচ পয়েন্ট)। দ্বিতীয় স্থানে থাকবে পর্তুগাল (চার পয়েন্ট)। হাঙ্গেরির চার পয়েন্ট হলেও মুখোমুখি লড়াইয়ে পর্তুগাল জিতেছিল। ফলে প্রথম দু’দল হিসেবে নক-আউটে যাবে ফ্রান্স এবং পর্তুগাল। সেরা চারটি তৃতীয় স্থানাধিকারী দলের মধ্যে থেকে শেষ ষোলোয় যাওয়ার একটা সুযোগ থাকবে হাঙ্গেরির সামনে।

৮) জার্মানি-হাঙ্গেরি ম্যাচ ড্র হল। ফ্রান্স জিতল। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে ফ্রান্স (সাত পয়েন্ট)। দ্বিতীয় স্থানে থাকবে জার্মানি (চার পয়েন্ট)। প্রথম দু’দল হিসেবে নক-আউটে যাবে ফ্রান্স এবং জার্মানি। তৃতীয় হবে পর্তুগাল (তিন পয়েন্ট)। তার ফলে সেরা তৃতীয় স্থানাধিকারী দল হিসেবে শেষ ষোলোর যাওয়ার সম্ভাবনা একেবারে কম থাকবে।

৯) জার্মানি-হাঙ্গেরি ম্যাচ ড্র হল। পর্তুগাল জিতল। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে পর্তুগাল (ছ’পয়েন্ট)। চার পয়েন্ট থাকবে জার্মানি এবং ফ্রান্সের। মুখোমুখি লড়াইয়ে জয়ের সুবাদে নক-আউটে পৌঁছে যাবে এমবাপের দেশ। সেরা চারটি তৃতীয় স্থানাধিকারী দলের মধ্যে থেকে শেষ ষোলোয় যাওয়ার একটা সুযোগ থাকবে জার্মানির সামনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *