মালান ঝড়ের পর ওকসের রেকর্ড; সর্বনিম্ন রানে অলআউট শ্রীলঙ্কা

ক্রিকেট

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুই টি-টোয়েন্টিতে হেরে সিরিজ খোয়ানোর পর এবার শেষ টি-টোয়েন্টিতেও ইংল্যান্ডের কাছে হেরে হোয়াইটওয়াশ হলো শ্রীলঙ্কা। শেষ টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের কাছে ৮৯ রানে হেরেছে সফরকারীরা।


সাউদাম্পটনে আগে ব্যাট করতে নেমে ডেভিন মালান ও জনি বেয়ারস্টোর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৬ উইকেটে ১৮০ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করায় ইংল্যান্ড। যেখানে ওপেনিং জুটিতেই ১০৫ রান যোগ করেন বেয়ারস্টো ও মালান। ৪৩ বলে ৫১ রানের ইনিংস খেলে ফেরেন বেয়ারস্টো। অন্যদিকে জস বাটলারের জায়গায় সুযোগ পেয়েই ৪৮ বলে ৭৬ রানের চোখ জুড়ানো ইনিংস উপহার দেন ডেভিড মালান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই গুনাথিলার উইকেট হারায় লঙ্কানরা। এরপর কেবল আসা যাওয়া করেন একের পর এক ব্যাটসম্যান। একদিক থেকে রান আটকে রাখেন ওকস অন্যদিকে উইকেট তুলতে থাকেন ডেভিড উইলি। উইকেট নেওয়ার প্রতিযোগিতায় যেন মেতে উঠেন ইংলিশ বোলাররা। ৭ জন বল করলে ৬ জনই পেয়েছেন উইকেট।

তাদের তোপে মাত্র ৯১ রানেই শেষ হয় লঙ্কানদের ইনিংস। টি-টোয়েন্টিতে লঙ্কানদের এটি তৃতীয় সর্বনিম্ন রান। তবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এর আগে কখনোই এতো কম রানে অলআউটের লজ্জায় পড়েনি লঙ্কানরা।

ইংল্যান্ডের হয়ে এদিন বল হাতে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন উইলি। ১ উইকেট নিয়েও রেকর্ড গড়েন ওকস। ৪ ওভার বোলিংয়ে মাত্র ৯ রান খরচাতেই ইংল্যান্ডের হয়ে সবচেয়ে ইকোনমিক্যাল বোলিংয়ের রেকর্ডটা নিজের করে নেন ৭ বছর পর ইংল্যান্ডের টি-টোয়েন্টি দলে ফেরা এই পেসার।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ
ইংল্যান্ড ১৮০/৬(২০)
মালান ৭৬, বেয়ারস্টো ৫১
চামিরা ৪/১৭, ফার্নান্দো ১/২৬

শ্রীলঙ্কা ৯১/১০(১৮.৫)
বুনোরা ফার্নান্দো ২০, ওষাদা ফার্নান্দো ১৯
উইলি ৩/২৭, কারান ২/১৪।

ফলাফলঃ ইংল্যান্ড ৮৯ রানে জয়ী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *