৮ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন এই দুই ক্রিকেটার

ক্রিকেট

ফিক্সিং বিতর্কে আইন ভঙ্গের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় সংযুক্ত আরব আমিরাত জাতীয় দলের দুই ক্রিকেটারকে ৮ বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আইসিসি।

আমিরাতের এই দুই ক্রিকেটার হলেন আমির হায়াত ও আশফাক আহমেদ। তাদের বিরুদ্ধে ধারা ২.১.৩, ধারা ২.৪.২, ধারা ২.৪.৩, ধারা ২.৪.৪ ও ধারা ২.৪.৫- এ পাঁচটি নিয়ম ভঙ্গের অভিযোগ ওঠে। তাদের বিরুদ্ধে পাঁচটি অভিযোগেই দোষী বলে প্রমাণিত হয়েছেন।

১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ থেকে তাদের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর বলে গণ্য হবে। তখন অভিযোগের ভিত্তিতে তাদের সাময়িক নিষিদ্ধ করেছিল আইসিসি।

যে পাঁচটি ধারা তারা ভঙ্গ করেছেন তার মধ্যে রয়েছে ম্যাচ ফিক্সিং বা ফলাফল প্রভাবিত করার অন্যায় চেষ্টার বিনিময়ে কোনো পুরস্কার চাওয়া বা নিতে রাজি হওয়া, কিংবা আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী নিয়ম ভঙ্গ হয় এমন কাজের প্রস্তাব পেয়েও তা আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী ইউনিটকে অবহিত না করা।

আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল বলেন, ‘জুয়াড়িদের হুমকি বোঝার মত যথেষ্ট সময় তারা সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলেছেন। তারা আইসিসির দুর্নীতি দমন শাখার একাধিক শিক্ষণীয় পাঠও নিয়েছেন এবং জানতেন কীভাবে দুর্নীতি এড়িয়ে যেতে হয়। তারা ব্যর্থ হয়েছে এবং তাদের ও আরব আমিরাতের ক্রিকেটের সবাইকে হতাশ করেছেন। তাদের শাস্তি অন্যদের জন্য সতর্কবার্তা।’

উল্লেখ্য, ৩৮ বছর বয়সী ডানহাতি মিডিয়াম পেসার আমির হায়াত সংযুক্ত আরব আমিরাতের হয়ে ৯ টি ওয়ানডে ও ৪টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। ১৩টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে তার উইকেট সংখ্যা ১৭।

আর ৩৪ বছর বয়সী আশফাক আহমেদ ১৬টি ওয়ানডে ও ১২টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। ১৬টি ওয়ানডেতে তার সংগ্রহ ৩৪৪ রান এবং ১২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তিনি করেছেন ২৩৮ রান। ওয়ানডেতে দুইটি ও টি-টোয়েন্টিতে তিনটি অর্ধশতক আছে ডানহাতি ব্যাটসম্যান আশফাক আহমেদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *