প্যারাগুয়েকে কাঁদিয়ে প্রথম দল হিসেবে কোপার সেমিতে পেরু

কোপা আমেরিকা

ম্যাচের প্রায় অর্ধেকেরও বেশি সময় এক জন কম নিয়ে খেলেও দুর্দান্ত লড়াই করল প্যারাগুয়ে। দুবার পিছিয়ে পড়েও ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচ নিল পেনাল্টি শুট আউটে। যদিও সেখানে সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারলো না প্যারাগুয়ে। তাদের হারিয়ে শেষ চারে জায়গা করে নিলো পেরু।

ব্রাজিলের গোইয়ানিয়ার অলিম্পিকোয় বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোরে প্রথম কোয়ার্টার-ফাইনালে পেনাল্টি শুট আউটে ৪-৩ এ জিতেছে পেরু। নির্ধারিত সময় ৩-৩ গোলে ড্র থাকায় ম্যাচ গড়ায় শুট আউটে।

গোমেজের গোলে শুরুতে এগিয়ে যায় প্যারাগুয়ে। ২১তম মিনিটে গোল করে পেরুকে ম্যাচে ফেরান লাপাদুলা। ৪০তম মিনিটে আবারও গোল করে দলকে এগিয়ে নেন এই পেরুভিয়ান তারকা।

প্রথমার্ধের শেষ দিকে প্যারাগুয়েকে এগিয়ে দেওয়া গোমেজ লাল কার্ড দেখে মাঠ ছেড়ে বিপদে ফেলেন দলকে। যদিও দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে সমতায় ফেরে প্যারাগুয়ে।

ম্যাচের ৮০তম মিনিটে ইয়তুনের গোলে জয়রর সুবাস পেতে থাকে পেরু। যদিও তখনও অনেক নাটকীয়তার বাকি। ৮৫তম মিনিটে পেরুর ক্যারিলো লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে দুই দলই দশ জনের দলে পরিণত হয়। জমে ওঠে ম্যাচ। শেষ মুহূর্তে আভালোসের গোলে সমতায় ফেরে প্যারাগুয়ে।

শেষ বাঁশি বাজলে খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। যেখানে দুই দলের প্রথম পাঁচটি শট শেষেও থাকে ৩-৩ এ সমতা। শেষ শটে পেরু গোল করলেও ব্যর্থ হয় প্যারাগুয়ে। ফলে জয় নিয়ে সেমির টিকেট হাতে পায় পেরু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *