ক্রিকেটার থেকে উইম্বলডনের প্রথম শিরোপা জিতে ইতিহাস গড়লেন বার্টি

টেনিস

নতুন রানি পেল উইম্বলডন। ক্যারোলিনা প্লিসকোভাকে হারিয়ে ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো উইম্বলডন শিরোপা জিতলেন অ্যাশলে বার্টি। ৪১ বছরের মধ্যে প্রথম অস্ট্রেলিয়ান নারী হিসেবে এই শিরোপা তার।


শনিবার সেন্টার কোর্টে চেক প্রজাতন্ত্রের প্লিসকোভার বিপক্ষে ১ ঘণ্টা ৫৬ মিনিটের লড়াই ৬-৩, ৬-৭ (৪-৭), ৬-৩ সেটে জিতেন বার্টি।

২০১৯ সালে ফ্রেঞ্চ ওপেন জেতা ২৫ বছর বয়সী এ তারকার এটি দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেতাব। বার্টি যাকে আইডল মানেন, সেই ইভন গোলাগং কাওলি ৪১ বছর আগে সবশেষ অজি নারী হিসেবে এই শিরোপা জিতেছিলেন। নিজের দুই উইম্বলডন শিরোপার শেষটি তিনি জিতেছিলেন ১৯৮০ সালে।

বার্টি এক দশক আগে উইম্বলডনে জুনিয়র চ্যাম্পিয়ন ছিলেন এবং ক্লান্তির কারণে ২০১৪ সালে প্রায় দুই বছর টেনিস সফর থেকে দূরে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তিনি তার দেশে পেশাদার ক্রিকেট খেলতে শুরু করেছিলেন।

ক্রিকেটে বার্টি ছিলেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। মিডিয়াম পেসারও। বিগ ব্যাশে পরপর দুই মৌসুম খেলেছেন দুটি ক্লাবের হয়ে। ব্রিসবেন হিট এবং কুইন্সল্যান্ড ফায়ারে। ক্রিকেটার হিসেবে ভালো কিছু করতে পারেননি। সেকারণেই হয়ত ২০১৬ সালে আবারো টেনিসে ফেরেন তিনি।

তাকে অবশ্য নির্দিষ্ট কোনও খেলা দিয়ে বিচার করা যায় না। কেননা ক্রিকেটার হিসেবে হাত পাকিয়ে অস্ট্রেলিয়ান পেশাদার গলফেও শিরোপা জিতেছেন তিনি।

এ ব্যাপারে বার্টি বলেছেন, ‘সেই সময়টায় টেনিস খুব বেশি উপভোগ করছিলাম না। হয়তো সেটাই কারণ। কিন্তু কিছুদিন যেতেই মনে হল, টেনিসটা জীবন থেকে হারিয়ে যাচ্ছে। মনে হল, টেনিসকেই বেশি ভালবাসি। ক্রিকেট ব্যক্তিগত খেলা নয়। সাহায্য করার জন্য দলের বাকি দশজন থাকে। তাই টেনিসে ফিরলাম। ক্রিকেট খেলে টেনিসেও উন্নতি করলাম।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *