পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কাকে নিয়ে বিশ্বকাপ আয়োজন করবে বাংলাদেশ!

বাংলাদেশ ক্রিকেট

২০২৭ এবং ২০৩১ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপ আয়োজনে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার সাথে যৌথভাবে স্বাগতিক হতে রাজি রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) একটি প্রস্তার দেওয়ার পর বিসিরি পক্ষ থেকে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

পাকিস্তানের মাটিতে দীর্ঘদিন ধরে আইসিসির কোন বড় ইভেন্ট হচ্ছে না। ২০২৭ এবং ২০৩১ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের মধ্য দিয়ে সেই অপেক্ষার অবসান ঘটাতে চায় তারা। তবে এককভাবে সম্ভব না হওয়ায় বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাকে পাশে চায় পাকিস্তান।

পাকিস্তানের এমন প্রস্তাবে রাজি রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। কারণ, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নাজমুল হাসান পাপনও এর আগে জানিয়েছিলেন, এককভাবে সম্ভব না হওয়ায় বিশ্বকাপ আয়োজনে পাশ্ববর্তী কয়েক দেশের সাথে যৌথভাবে বিড করবে বাংলাদেশ।

পাশ্ববর্তী দেশের মধ্যে ভারত এককভাবে বিশ্বকাপ আয়োজনে সক্ষম। ফলে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কাকে সাথে নিয়ে বিশ্বকাপ আয়োজনে পাকিস্তানের প্রস্তাব যুক্তিসংগত। বিষয়টি নিয়ে দুই দেশের বোর্ডের সাথে কথা বলবে বাংলোদেশ।

এ বিষয়ে বিসিবির পরিচালক ও মিডিয়া কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, বাংলাদেশে এককভাবে সম্ভব না হলেও এশীয় প্রতিবেশীদের সাথে যৌথভাবে আয়োজন সম্ভব। সেক্ষেত্রে শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তানের সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা ইতিমধ্যে জানিয়েছি যে, বাংলাদেশ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি এককভাবে আয়োজক হতে চায়। এছাড়া প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে অন্যান্য ইভেন্টে (বিশ্বকাপ) সহ-আয়োজনে প্রস্তুত রয়েছি।’

জালাল ইউনুস আরও বলেন, ‘ভারত এককভাবে আয়োজনের জন্য বিড করতে পারে, কারণ তারা সক্ষম। তাদের পরিকাঠামো তৈরি করা আছে। সেক্ষেত্রে আমাদের সহযোগী করতে হলে পিসিবি এবং এসএলসি নিয়ে করতে হবে।’

২০২৪ থেকে ২০৩১ সাল পর্যন্ত আইসিসি ইভেন্ট আয়োজনে আগ্রহ প্রকাশ করে বিড কারর সময়সীমা ছিল ৩০ জুন পর্যন্ত। এ সময়ে মোট ১৭টি দেশ আগ্রহ প্রকাশ করেছে। যার মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে।

বাংলাদেশ ছাড়া বাকি ১৬টি দেশ হলো- অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ভারত, আয়ারল্যান্ড, মালয়েশিয়া, নামিবিয়া, নিউজিল্যান্ড, ওমান, পাকিস্তান, স্কটল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, সংযুক্ত আরব আমিরাত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং জিম্বাবুয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *